ব্যক্তি জীবনেও আমি এমন: আরেফিন শুভ

নতুন প্রজন্মের চিত্রনায়ক আরেফিন শুভ। বাংলা নববর্ষে মুক্তি পেয়েছে তাঁর নতুন সিনেমা ‘ধ্যাততেরিকি’। তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ফারিয়া। এবারই প্রথম কমেডি চরিত্রে দেখা গেছে শুভকে। সিনেমার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তিনি কথা বলেছেন দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের সঙ্গে।
Arefin Shubho
অভিনেতা আরেফিন শুভ। ছবি: দ্য ডেইলি স্টার

নতুন প্রজন্মের চিত্রনায়ক আরেফিন শুভ। বাংলা নববর্ষে মুক্তি পেয়েছে তাঁর নতুন সিনেমা ‘ধ্যাততেরিকি’। তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ফারিয়া। এবারই প্রথম কমেডি চরিত্রে দেখা গেছে শুভকে। সিনেমার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তিনি কথা বলেছেন দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের সঙ্গে।

 

স্টার অনলাইন: এবার নববর্ষে একমাত্র ছবি ‘ধ্যাততেরিকি’ মুক্তি পেয়েছে। কেমন সাড়া পাচ্ছেন দর্শকদের কাছ থেকে?

আরেফিন শুভ: ছবিটি মুক্তির একদিন আগে থেকে আমার মা খুব অসুস্থ ছিলেন। তেমন প্রচারণা করতে পারিনি। যতটুকু জেনেছি, দর্শকরা বেশ আগ্রহ নিয়েই ছবিটি দেখছেন এবং তাঁরা নিরাশ হচ্ছেন না। এটি একটি কমেডি ধাঁচের ছবি। সবাই ছবিটি দেখে বেশ আনন্দ পাচ্ছেন।

স্টার অনলাইন: কেন কমেডি ছবি বেছে নিলেন?

আরেফিন শুভ: প্রতিনিয়তই নিজেকে ভাঙতে চাই। তাই সব ধরনের গল্পের ছবিতে অভিনয় করি। আসলে ছবির গল্প ও সংলাপ শুনে মানুষ হাসে বা কাঁদে। আমি শুধু গল্পের একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। পরিচালক, প্রযোজক আমাকে রোমান্টিক, অ্যাকশন ছবির বাইরে ভেবেছেন। তাঁরা আমার প্রতি বিশ্বাস রেখেছেন এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া। আমি ব্যক্তিজীবনেও এমন হাসি-খুশি থাকতে পছন্দ করি। ‘ধ্যাততেরিকি’ সিনেমায় আরও রয়েছেন নুসরাত ফারিয়া, রোশান ও ফারিন।

স্টার অনলাইন: আপানর অভিনয় দক্ষতার সবটুকুই কি ব্যবহার করা হচ্ছে সিনেমাগুলোতে?

আরেফিন শুভ: সিনেমায় আমার যাত্রা তো খুব বেশি দিনের নয়। একটু একটু করে শিখছি, পথ চলছি। এখন পর্যন্ত তৃপ্তি নিয়ে কোনো ছবিতে কাজ করতে পারিনি। আরও দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে। সিনেমার গল্পের ওপর নির্ভর করে সবটা। আলমগীর স্যারের (আলমগীর) ‘একটি সিনেমার গল্প’ নিয়ে আমি অনেক আশাবাদী।

স্টার অনলাইন: কবে শুরু হবে এই সিনেমার কাজ?

আরেফিন শুভ: যতোটুকু জানি সেপ্টেম্বরে ‘একটি সিনেমার গল্প’-এর শুটিং শুরু হবে। ছবিটিতে আমার বিপরীতে আছেন পাওলি দাম।

স্টার অনলাইন: আমাদের সিনেমা হলের পরিবেশ তো ভালো নয়। এমন পরিবেশে লোকজন কীভাবে সিনেমা দেখবেন?

আরেফিন শুভ: সিনেমা হলের পরিবেশ তো এখন খুব একটা ভালো না – এটা একশভাগ সত্যি কথা। ভালো সিনেমা হল না থাকলে আপনি কোথায় বসে সিনেমা দেখবেন? এমন অনেক সিনেমা হলে আমি গিয়েছি, যেখানে ফ্যান পর্যন্ত নেই। তারপরও মানুষ আমাদের সিনেমা দেখছেন। কিন্তু সবাই এতো কষ্ট করে কেন সিনেমা দেখবেন? সিনেমাকে বাঁচাতে হলে, সিনেমা হলের পরিবেশ ঠিক করতে হবে।

স্টার অনলাইন: আপনাকে ধন্যবাদ সময় দেওয়ার জন্য।

আরেফিন শুভ: ডেইলি স্টার অনলাইন ও আমার ভক্তদের জন্য শুভেচ্ছা।

Comments

The Daily Star  | English

Signal 7 at Payra, Mongla as Cyclone Remal forms over Bay

Cox’s Bazar, Ctg maritime ports asked to hoist Signal 6

2h ago