বাণিজ্য

বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী আর্জেন্টিনা

বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে চায় আর্জেন্টিনা। এজন্য ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে আর্জেন্টিনার ব্যবসায়ীসহ দেশটির উচ্চপর্যায়ের একটি বিশেষ প্রতিনিধি দল ঢাকায় আসবে।
এফবিসিসিআই কার্যালয়ে আয়োজিত সৌজন্য সভায় নয়াদিল্লিতে অবস্থিত আর্জেন্টিনা দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন (ডিসিএম) এবং দূতাবাসের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্য অফিসের প্রধান ফ্রাঙ্কো অগাস্টিন সেনিলিয়ানি মেলচিওর। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে চায় আর্জেন্টিনা। এজন্য ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে আর্জেন্টিনার ব্যবসায়ীসহ দেশটির উচ্চপর্যায়ের একটি বিশেষ প্রতিনিধি দল ঢাকায় আসবে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে এফবিসিসিআই কার্যালয়ে আয়োজিত এক সৌজন্য সভায় এ কথা জানান নয়াদিল্লিতে অবস্থিত আর্জেন্টিনা দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন (ডিসিএম) এবং দূতাবাসের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্য অফিসের প্রধান ফ্রাঙ্কো অগাস্টিন সেনিলিয়ানি মেলচিওর।

ফ্রাঙ্কো অগাস্টিন সেনিলিয়ানি মেলচিওর বলেন, বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনার মধ্যে অনেক সম্ভাবনাময় খাত আছে। এই খাতগুলো নিয়ে কাজ করে উভয়দেশই উপকৃত হতে পারবে।

বাংলাদেশে লিথিয়াম, অলিভ অয়েল, প্রক্রিয়াজাত খাবার, স্বর্ণের কাঁচামালের চাহিদা আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই পণ্যগুলো আমদানির জন্য বাংলাদেশের কাছে একটি ভালো বিকল্প হতে পারে আর্জেন্টিনা। একইসঙ্গে আর্জেন্টিনাতেও পোশাকের প্রচুর চাহিদা থাকায় বাংলাদেশের রপ্তানিকারকরা সেই চাহিদাকে কাজে লাগাতে পারবেন।

আর্জেন্টিনার বৈচিত্রপূর্ণ খাতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগেরও আহ্বান জানান তিনি।

এসময় বাংলাদেশে দূতাবাস খোলার উদ্যোগ নেওয়ায় আর্জেন্টিনাকে ধন্যবাদ জানায় এফবিসিসিআই।

এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি মো. আমিন হেলালী বলেন, খনিজ ও ভোজ্যতেলের ক্ষেত্রে আর্জেন্টিনা বাংলাদেশের জন্য একটি ভালো বিকল্প হতে পারে। একইসঙ্গে বাংলাদেশি রপ্তানিকারকদের জন্য আর্জেন্টিনার টেক্সটাইল মার্কেট একটি ভালো সুযোগ তৈরি করবে।

তিনি আরও বলেন, ২ দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে সম্পর্ক গভীর করতে এফবিসিসিআই বিটুবি বৈঠকের আয়োজন করবে।

এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি চলতি বছরের মার্চে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বাংলাদেশ বিজনেস সামিটে যোগ দিতে আর্জেন্টিনার ব্যবসায়ী ও সরকারকে আমন্ত্রণ জানান।

Comments