বাংলাদেশের ঋণমান কমানোর আভাস এসঅ্যান্ডপির

এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল রেটিংস বাংলাদেশের ঋণমান স্থিতিশীল থেকে 'নেতিকবাচক' অবস্থানে নামিয়ে এনেছে।
এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল রেটিংস, এসঅ্যান্ডপি, ঋণমান,
রয়টার্স ফাইল ফটো

এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল রেটিংস বাংলাদেশের ঋণমান কমানোর আভাস দিয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল রেটিংস বাংলাদেশের ঋণমান স্থিতিশীল থেকে 'নেতিকবাচক' অবস্থানে নামিয়ে এনেছে।

এসঅ্যান্ডপির প্রত্যাশা, ২০২৪ থেকে ২০২৬ সালের মধ্যে বাংলাদেশের অর্থনীতির বার্ষিক প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশ থেকে ৬ দশমিক ৪ শতাংশের মধ্যে হবে। তবে, ২০২৩ সালের জুনে শেষ হওয়া অর্থবছরে বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক শূন্য তিন শতাংশে নেমে এসেছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডলার ঘাটতির কারণে আমদানি করা জ্বালানির অর্থ পরিশোধে হিমশিম খাচ্ছে বাংলাদেশ। ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরুর পর থেকে ডলারের মজুত এক তৃতীয়াংশেরও বেশি কমে গত ১৯ জুলাই পর্যন্ত ২৯ দশমিক ৮৫ বিলিয়ন ডলার ছিল।

এসঅ্যান্ডপি বলছে, আগামী ১২ মাসের মধ্যে বাংলাদেশের বহিস্থ খাতের স্থিতিশীলতার জন্য অনুকূল বাণিজ্য ও আর্থিক প্রবাহ প্রয়োজন।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) থেকে ৪ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার ঋণ নিয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Iran attacks: Israel may not act rashly

US says Israel's response would be unnecessary; attack likely to dispel murmurs in US Congress about curbing weapons supplies to Israel because of Gaza

2h ago