ঢাকায় চার্লি পুথ আসার খবর সত্য নয়

সিলভারলাইন ইভেন্টসের ফেসবুক পেজ সরিয়ে ফেলা হয়েছে এবং আয়োজকদের কাউকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না। ওয়েবসাইটে টিকিটের অর্থপ্রদানের জন্য যে নম্বরটি দেওয়া হয়েছে ট্রু কলার অ্যাপে সেটি ‘স্ক্যামার’ হিসেবে দেখানো হচ্ছে।

আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি জনপ্রিয় মার্কিন সংগীতশিল্পী চার্লি পুথের ঢাকায় আসছেন—এমনটাই ঘোষণা দিয়েছিল সিলভারলাইন ইভেন্টস নামে একটি প্রতিষ্ঠান। তবে প্রতিষ্ঠানটির নির্ভরযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, চার্লি পুথের ঢাকায় আসার খবরটি সত্য নয়।

সিলভারলাইন ইভেন্টস তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কনসার্টের তারিখ ঘোষণা করে। ওই কনসার্টে বাংলাদেশি দুজন শিল্পীও গান করবেন বলে সংস্থাটি জানায়। কনসার্টের ভেন্যু ঠিক করা হয় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি)। তবে টিকিটের দাম ঘোষণার পরপরই এ নিয়ে সন্দেহ শুরু হয়। সিলভারলাইন ইভেন্টস এই কনসার্টের টিকেটের দাম নির্ধারণ করে মাত্র দুই হাজার টাকা, যা চার্লি পুথের মতো আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শিল্পীর অনুষ্ঠানের টিকিটমূল্য হিসেবে অস্বাভাবিক।

কনসার্টের আয়োজকরা দ্য ডেইলি স্টারকে তাদের মিডিয়া পার্টনার হিসেবে দাবি করলে তাদের জালিয়াতির বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত হতে ডেইলি স্টারের সাংবাদিক আকিব হাসিব চার্লি পুথের ব্র্যান্ড ম্যানেজার ব্রেন্ট স্মিথের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ইমেইলের জবাবে ব্রেন্ট স্মিথ জানায়, চার্লি পুথের ঢাকায় আসার খবরটি সঠিক নয়।

ইমেইলে ব্রেন্ট স্মিথ বলেন, 'এই ধরনের খবরের উৎপত্তি কীভাবে হয়েছে সে ব্যাপারে আমি নিশ্চিত নই। তবে এটা সঠিক তথ্য নয়। বাংলাদেশে যাওয়ার ব্যাপারে চার্লির কোনো কথা হয়নি।'

বিষয়টি নিয়ে আয়োজকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, চার্লি পুথকে তারা ঢাকায় নিয়ে আসছেন। খুব শিগগিরই চার্লি পুথ একটি ভিডিওতে এই কনসার্টের ঘোষণা দেবেন।

তবে এরপর থেকে সিলভারলাইন ইভেন্টসের ফেসবুক পেজ সরিয়ে ফেলা হয়েছে এবং আয়োজকদের কাউকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না। ওয়েবসাইটে টিকিটের অর্থপ্রদানের জন্য যে নম্বরটি দেওয়া হয়েছে ট্রু কলার অ্যাপে সেটি 'স্ক্যামার' হিসেবে দেখানো হচ্ছে।

অন্যদিকে বাংলাদেশভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ফ্যাক্টওয়াচ জানায়, কনসার্টের আয়োজক সিলভারলাইন ইভেন্টস নামের যেই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সংস্থার নাম ব্যবহার করা হয়েছে সেটা মূলত একটি জালিয়াতি সংস্থা। এই ওয়েবসাইটটি চলতি মাসের ১২ তারিখে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে যার মেয়াদকাল ২০২৪ সালের ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

ওয়েবসাইটে কনসার্টের টিকেটের দামও নির্ধারণ করা হলেও টিকিটের মূল্য পরিশোধের মাধ্যম হিসেবে কোনো ব্যাংক না, বরং শুধু একটি নগদ অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা হয়েছে। তাছাড়া, ওই ওয়েবসাইটে চার্লি পুথের কনসার্ট ছাড়া আর কোনো ইভেন্টের ব্যাপারে উল্লেখ পাওয়া যায়নি।

চার্লি পুথের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করা আছে যে, তার আসন্ন কোনো কনসার্টের তারিখ এখনো নির্ধারিত হয়নি।

Comments

The Daily Star  | English

Air pollution caused most deaths in 2021

Air pollution has become the leading cause of death in Bangladesh, outpacing fatalities from high blood pressure, poor diet and tobacco use, found a new study.

10h ago