নোয়াখালীতে ১২ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা

ডা. মাসুম ইফতেখার বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে মাইজদি ও বিভিন্ন উপজেলা সদরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে দাঁতের চিকিৎসা ও রোগ নির্ণয়ের নামে প্রতারণা করা হচ্ছিল।’
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

নানা অনিয়ম, সরকারি অনুমোদন না থাকা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার অভিযোগে নোয়াখালী সদরের ১২টি ডেন্টাল ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা করে দিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

অভিযানে একাধিক ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে সর্তক করা হয়েছে।

নোয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এই অভিযান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নাঈমা নুসরাত জাবিন। এ সময় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ডা. মাসুম ইফতেখার বলেন, 'দীর্ঘদিন ধরে মাইজদি ও বিভিন্ন উপজেলা সদরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে দাঁতের চিকিৎসা ও রোগ নির্ণয়ের নামে প্রতারণা করা হচ্ছিল। এ জন্য এই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।'

তিনি বলেন, 'অভিযানে দেখা গেছে, লাইসেন্সবিহীন এসব ক্লিনিকে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে দাঁতের চিকিৎসা করা হচ্ছে এবং রোগ নির্ণয় করা হচ্ছে। এসব অনিয়মের অভিযোগে আটটি ডেন্টাল ক্লিনিক, তিনটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও একটি ফিজিওথেরাপি সেন্টার বন্ধ করে সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।'

বন্ধ করা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে দ্য ডেন্টাল পয়েন্ট, মা ডেন্টাল কেয়ার, মডার্ন ডেন্টাল কেয়ার, নোয়াখালী ডেন্টাল কেয়ার, নাজস্কুল ডেন্টাল কেয়ার, নিপেন ডেন্টাল কেয়ার, আশা ডেন্টাল কেয়ার, মেঘ ডেন্টাল কেয়ার, জাহানারা ডেন্টাল অ্যান্ড অর্থোডেন্টিক সেন্টার, ন্যাশনাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, উদয়সাধুর হাট ডেন্টাল কেয়ার।

ডা. নাঈমা নুসরাত জাবিন বলেন, 'মন্ত্রণালয় ও সিভিল সার্জনের নির্দেশনা অনুযায়ী সকাল থেকে মাইজদি ও কয়েকটি ইউনিয়নে অভিযান চালানো হয়েছে। অভিযানকালে নিবন্ধন, বৈধ কাগজপত্র, চিকিৎসক ও টেকনোলজিস্ট না থাকায় আটটি ডেন্টাল ক্লিনিক ও দুটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা করা হয়েছে।'

Comments

The Daily Star  | English

End crackdown on protesters, lift all curbs: Amnesty

Amnesty International today urged the Bangladesh government and its agencies to respect the right to protest, end violent crackdown on protesters and immediately lift all communication restrictions

8m ago