আন্তর্জাতিক

নওয়াজের দলের বিরুদ্ধে ‘ভোট কারচুপি’র অভিযোগ, কাল ইমরানের সঙ্গে দেখা করবে পিটিআই

নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) বিরুদ্ধে ভোটে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ এনেছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। 
ইসলামাবাদে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) সমর্থকরা দলের কার্যালয়ে টেলিভিশনে নির্বাচনের ফলাফল দেখছেন। ছবি: রয়টার্স

নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) বিরুদ্ধে ভোটে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ এনেছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। 

এজন্য নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে তারা আগামীকাল শনিবার দলের সিনিয়র নেতৃত্বের সঙ্গে পরামর্শ করবে এবং দুর্নীতির দায়ে কারাগারে বন্দী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে দেখা করবে বলে জানিয়েছে।

আজ শুক্রবার রাতে বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নিজেদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পিটিআই জানায়, নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল-এন যতগুলো আসনে জয় পেয়েছে, তার সবগুলোতেই 'ভোট কারচুপি' হয়েছে। 

নির্বাচনে পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার বিষয়ে নওয়াজ শরিফের দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে পিটিআই বলছে, তিনি 'নির্লজ্জভাবে মিথ্যাচার' করেছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তানে ২৬৫ আসনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল ভোটের ফল প্রকাশ করা হয়নি।

আজ শুক্রবার রাতে জিও নিউজ জানিয়েছে, ২৪১ আসনের ফলাফলে ইমরান খান সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৯৬টিতে জয়লাভ করেছেন। 

এ ছাড়া, নওয়াজ শরিফের দল জিতেছে ৬৯টিতে এবং পিপিপি জিতেছে ৫২ আসনে। 

ইমরান খানের দলের তথ্য সচিব ঘোষণা করেছেন যে, পিটিআই দেশের কেন্দ্রের পাশাপাশি খাইবার-পাখতুনখাওয়া এবং পাঞ্জাব জেলায় 'একক বৃহত্তম রাজনৈতিক শক্তি' হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।

পিটিআই নেতা রউফ হাসান বলেন, 'ইমরান খানকে পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য জনগণ গর্জনের সঙ্গে অনুমোদন করেছেন।'

তিনি বলেন, 'ক্ষমতাধরদের অবশ্যই জনগণের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাতে হবে। এই সিদ্ধান্ত পাল্টে দেওয়ার কোনো প্রচেষ্টা হলে পরিণতি হবে মারাত্মক।'

 

Comments