এই জীবন দীর্ঘ হোক তা আর চাই না: হেলাল হাফিজ

প্রায় ১৩ দিন ধরে হাসপাতালে আছি। মাঝে মাঝে খুব ক্লান্ত লাগে। শারীরিক- মানসিক নানান জটিলতার সঙ্গে নিঃসঙ্গতা তো আছেই। এখন মনে হয়, এই জীবন দীর্ঘ হোক তা আর চাই না
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

প্রায় ১৩ দিন ধরে হাসপাতালে আছি। মাঝে মাঝে খুব ক্লান্ত লাগে। শারীরিক- মানসিক নানা জটিলতার সঙ্গে নিঃসঙ্গতা তো আছেই। এখন মনে হয়, এই জীবন দীর্ঘ হোক তা আর চাই না

৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে কথা হয় কবি হেলাল হাফিজের সঙ্গে। দ্য ডেইলি স্টারকে তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন ধরে গ্লুকোমায় আক্রান্ত। পাশাপাশি কিডনি, ডায়াবেটিস ও স্নায়ু জটিলতার মতো নানা শারীরিক সমস্যায় ভুগছি। এতো সমস্যার ভেতর জীবন দীর্ঘ কীভাবে চাই?   

মাত্র ২টি কবিতার বই দিয়েই হেলাল হাফিজ জয় করেছেন অজস্র পাঠকের হৃদয়। বলা যায়, 'ভালো লাগা' একাকীত্বকে সঙ্গী করেই কেটে যাচ্ছে তার জীবন। নানাবিধ রোগে ভুগতে থাকা এই কবি এখন অনেকটা শয্যাশায়ী। বর্তমানে ভর্তি আছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে। তার এক সপ্তাহ আগেই রাজধানীর বারডেম হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে ফিরেছিলেন শাহবাগের একটি হোটেলে। গত কয়েক বছর ধরে এখানেই থাকছেন তিনি।

কবিকে কিছুদিন আগে প্রশ্ন করেছিলাম কেন হোটেলে থাকেন, জবাবে বলেছিলেন, 'আমি হোটেলজীবন এনজয় করি। নিঃসঙ্গতা, নির্জনতা আমার ভালো লাগে। একাকীত্বের এই বেদনাকে আমি উপভোগ করি।'

বাংলা ভাষার জনপ্রিয় এই কবি ১৯৪৮ সালের ৭ অক্টোবর নেত্রকোণায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮৬ সালে তার প্রথম কবিতার বই 'যে জলে আগুন জ্বলে' প্রকাশিত হয়। কবিতার জন্য ২০১৩ সালে তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।

আগামী ৭ অক্টোব শুক্রবার বিকাল ৫টায়, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের ৫ম তলায় কবির জন্মদিনে শুভাকাঙ্ক্ষী ও কবিতা প্রেমীরা আয়োজন করেছে আনন্দ সন্ধ্যার। জন্মদিন উপলক্ষে প্রকাশিত হেলাল হাফিজের কবিতা নিয়ে প্রবন্ধের বই 'ফুল ও ফুলকী'র মোড়ক উন্মোচন হবে। বইটি লিখেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী। প্রকাশ করেছে দিব্যপ্রকাশ, প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ।

 

Comments

The Daily Star  | English

‘Will implement Teesta project with help from India’

Prime Minister Sheikh Hasina has said her government will implement the Teesta project with assistance from India and it has got assurances from the neighbouring country in this regard.

1h ago