৫ বছরের মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিলেন মা

কুষ্টিয়ায় আত্মহত্যা করতে ৫ বছরের মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন সুমি খাতুন নামের এক নারী। এ ঘটনায় ওই শিশুটির বাম হাত কাটা পড়েছে।
ছবি: স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

কুষ্টিয়ায় আত্মহত্যা করতে ৫ বছরের মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন সুমি খাতুন নামের এক নারী। এ ঘটনায় ওই শিশুটির বাম হাত কাটা পড়েছে।

আজ শনিবার সকাল ৮টার দিকে শহরের হরিশংকরপুর ধোপাপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আহত সুমি খাতুন কুষ্টিয়া শহরের হাউজিং এস্টেট এলাকার সাপ্পী ইসলামের স্ত্রী। প্রায় ১২ বছর আগে সুমির সঙ্গে সাপ্পীর বিয়ে হয়। ৫ বছরের মেয়েটি ছাড়াও এই দম্পতির ৮ বছর বয়সী একটি ছেলে সন্তান আছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সুমির এক স্বজন জানান, স্বামীর সঙ্গে সুমির মাঝেমধ্যেই ঝগড়া হতো। শনিবার সকালে পারিবারিক কলহের জেরে সুমি তার মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করতে যান।

পোড়াদহ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনজের আলী প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বলেন, হরিশংকরপুর ধোপাপাড়া এলাকায় সুমি একটি মালবাহী ট্রেনের নিচে লাফ দেন। এ ঘটনায় শিশুটির বাম হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এছাড়া মা ও মেয়ের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় গুরুতর জখম হয়েছে।

মা-মেয়েকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

Comments