দুর্ঘটনা ও অগ্নিকাণ্ড

বাবা-ছেলেসহ ৪ জেলায় সড়কে প্রাণ গেল ৭ জনের

আজ বৃহস্পতিবার ও গতকাল বুধবার রাতে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে বাসচাপায় বাবা-ছেলে, পাবনায় বাসচাপায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীসহ ২ জন, কুড়িগ্রামের রাজারহাটে মোটরসাইকেল উল্টে ২ যুবক এবং পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় প্রাইভেটকারের ধাক্কায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক নিহত হয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার ও গতকাল বুধবার রাতে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে সড়ক বাসচাপায় নিহতরা হলেন সুব্রত সরকার বাপ্পি (৩০) ও তার ছেলে পবিত্র সরকার তুর্ষ (৪)। এ ঘটনায় আহত সুব্রত সরকারের স্ত্রী শ্যামলী সরকারকে (২৬) আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ দুপুর ২টার দিকে আশাশুনি-ঘোলা সড়কের কোদনাদাহ এলাকার কেরানীর মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা ও আশাশুনি থানার ওসি বিশ্বজিৎ কুমার জানান, সুব্রত সরকার তার স্ত্রী শ্যামলী  ও সন্তান তুর্ষকে নিয়ে নিয়ে মোটরসাইকেলে আশাশুনি সদর থেকে তাদের বাড়ি বলাবাড়িয়া যাচ্ছিলেন। পথে আশাশুনি-ঘোলা সড়কের কোদনাদাহ এলাকার কেরানীর মোড়ে একটি বাস তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সুব্রত ও তুর্ষ মারা যান। বাসটি জব্দ করা হয়েছে এবং বাসের চালককে আটক করা হয়েছে।

পাবনা

পাবনায় বাসচাপায় নিহতরা হলেন সুজানগর উপজেলার জুনা রামচন্দ্রপুর এলাকার রিফাত আল সিফাত (২১) এবং চাটমোহরের পাশ্ব ডাঙ্গার মহেলা এলাকার রুম্মান (২০)। তাদের মধ্যে সিফাত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

আজ সকাল ১১টার দিকে পাবনা সদর উপজেলার পাবনা-রাজশাহী মহাসড়কের টেবুনিয়া সিড গোডাউনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

পাকশি হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশিস কুমার স্যান্যাল জানান, সকালে রাজশাহী থেকে যাত্রীবাহী বাস রাব্বি পরিবহন ঘটনাস্থলে ঈশ্বরদীগামী সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে অটোরিকশার যাত্রী সিফাত ও রুম্মান মারা যান। আহত হন আরও একজন। বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছেন।

কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলায় রাস্তার ওপর মোটরসাইলে উল্টে নিহত ২ যুবক হলেন মনিরুজ্জামান পাভেল (৩১) ও হোসেন আলী (৩০)। এ ঘটনায় মারজান আলী (২৯) নামের আরেক যুবক আহত হয়েছেন।

রাজারহাট থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্ল্যাহ হিল জামান জানান, বুধবার রাতে রাজারহাট উপজেলার ছিনাই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওই ৩ জন একই মোটরসাইকেলে চড়ে দ্রুতগতিতে ছিনাই বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন। রাস্তার ওপর স্পিডব্রেকারে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে পড়ে যায়।

হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান মনিরুজ্জামান পাভেল। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধিক অবস্থায় মারা যান হোসেন আলী। আহত মারজান আলী হাসপাতালে ভর্তি আছেন। নিহত ২ যুবকের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

পঞ্চগড়

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার আজিজনগর গ্রামে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নিহতের নাম ইশা মিয়া (৭৯)। তিনি গুয়াবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষক।

তেঁতুলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন মোল্লা জানান, আজ বিকেলে পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। সাব-ওয়ে থেকে মহাসড়কের কাছে আসার সময় বাংলাবান্ধাগামী একটি প্রাইভেটকার ইশা মিয়াকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে তেঁতুলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ প্রাইভেটকারটি জব্দ করেছে। তবে চালক পালিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় তেঁতুলিয়া থানায় মামলা হয়েছে।

 

Comments