অপরাধ ও বিচার

ব্যাংক-আর্থিক খাত নিয়ে ‘গুজব রটনাকারী’ ৫ জন গ্রেপ্তার

ব্যাংক ও আর্থিক খাত নিয়ে ‘গুজব রটনাকারী’ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করেন ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদ। ছবি: মুনতাকিম সাদ/স্টার

ব্যাংক ও আর্থিক খাত নিয়ে 'গুজব রটনাকারী' ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে ডিবির প্রধান হারুন অর রশীদ জানান, সম্প্রতি এস আলম গ্রুপের মালিকানাধীন ইসলামী ব্যাংকসহ অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক খাত নিয়ে গুজব রটনার অভিযোগে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম (উত্তর) বিভাগ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন, মোহাম্মদ নুর উন নবী, মো. আফসার উদ্দিন রোমান, মো. আবু সাইদ সাজু, মো. স্বাধীন মিয়া ও মো. আব্দুস সালাম। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে গতকাল তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিবি প্রধান বলেন, 'কতিপয় ব্যক্তি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে মনগড়া মিথ্যা তথ্য প্রচার করে দেশের আর্থিক খাতকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্প্রতি ডিএমপি ঢাকার ডিবি সাইবার মনিটরিং টিমের নজরে বিষয়টি আসে। এ নিয়ে অধিকতর তদন্ত করে দেখা যায়, গ্রেপ্তারকৃতরাসহ অজ্ঞাত ব্যক্তিরা দেশে ও দেশের বাহিরে অবস্থানরত স্বাধীনতা বিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের সহযোগিতায় দেশের আর্থিক খাত সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নামে মনগড়া তথ্য উপাত্ত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রচার করছেন।'

তিনি আরও বলেন, 'ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড বাংলাদেশের একটি স্বনামধন্য ব্যাংক। দেশ বিরোধী চক্র সাধারণ মানুষের মাঝে ব্যাংকিং খাত নিয়ে আস্থার সংকট তৈরি করার চেষ্টা করছিল। এই চক্রের মূল উদ্দেশ্য, দেশের আর্থিক খাতকে অস্থিতিশীল করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলা।'

'গ্রেপ্তারকৃতরা এস আলম গ্রুপসহ স্বনামধন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানদের নামে ব্যাংকিং সংক্রান্ত মিথ্যা অপপ্রচার ও গুজব চালিয়ে আসছে। তারা প্রবাসীদের রেমিট্যান্স না পাঠানোর বিষয়েও প্রচারণা চালিয়ে আসছিলেন। ব্যাংক দেউলিয়া হয়ে যাবে, ব্যাংকে টাকা নেইসহ নানাবিধ গুজব রটানোর কাজে তারা জড়িত', যোগ করেন তিনি।

সম্প্রতি এস আলম গ্রুপের ঋণ উত্তোলন নিয়ে গণমাধ্যমে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশের পর ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থানে এস আলম গ্রুপের বিরুদ্ধে পোস্টার লাগানো হয়েছে। পোস্টারে উল্লেখ করা হয়েছে, এস আলম গ্রুপের মালিকরা ব্যাংক লুটেরা; অনুগ্রহ করে ৭টি ব্যাংক ও দেশের জনগণকে এই ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে বাঁচান।

ডিবি প্রধান বলেন, 'এই পোস্টার লাগানোর পেছনে গ্রেপ্তারকৃতরা ও বিদেশে অবস্থানরত কয়েকজনের হাত রয়েছে।'

হারুন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, গ্রেপ্তারকৃতরা ইসলামী ব্যাংকসহ বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান নিয়ে বিভিন্ন নেতিবাচক প্রচারণায় জড়িত ছিলেন। ঘটনায় জড়িত অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তারে ডিবি অভিযান চালাচ্ছে।

গতকাল গ্রেপ্তার করা ৫ জনের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় মামলা করা হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

All animal waste cleared in Dhaka south in 10 hrs: DSCC

Dhaka South City Corporation (DSCC) has claimed that 100 percent sacrificial animal waste has been disposed of within approximately 10 hours

2h ago