জমি নিয়ে বিরোধ

অন্তঃসত্ত্বা নারীকে নির্যাতনের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক কারাগারে

মারধরের কারণে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ওই নারীর গর্ভপাত ঘটে বলেও মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

বান্দরবানের আলীকদমে জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী অন্তঃসত্ত্বা নারীকে নির্যাতনের অভিযোগে করা মামলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

আজ সোমবার জেলার সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতের বিচারক এ আদেশ দেন।

অভিযুক্ত চাহ্লাথোয়াই মার্মা আলীকদম উপজেলার দো'ছড়ি পাড়াও ম্রো পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক।

আদালত পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আলীকদম উপজেলার ১ নম্বর ইউনিয়নের বাজার পাড়ার বাসিন্দা চাহ্লাথোয়াই মারমা জমি নিয়ে বিরোধের জেরে গত ১২ মে প্রতিবেশী অন্তঃসত্ত্বা উ ওয়াচিং মারমাকে মারধর করেন। এই ঘটনার পর মারপিট, জখম, শ্লীলতাহানি, চুরি ও ভয় দেখানোর অভিযোগে চাহ্লাথোয়াইয়ের বিরুদ্ধে ১৫ জুন মামলা করেন ওই নারী।

মারধরের কারণে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ওই নারীর গর্ভপাত ঘটে বলেও মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

আসামিপক্ষের আইনজীবী মো. শামসুল হক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ঘটনাটি পারিবারিক। মামলার আসামি বাদীর দেবর। তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধ আছে।'

তিনি আরও বলেন, 'আগামী ৭ দিনের মধ্যে আদালত বাদীকে আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের সব নথিপত্র ও মেডিকেল রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। তখন অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ হবে।'

Comments