অপরাধ ও বিচার

কক্সবাজারে কমান্ডারসহ ৩ আরসা সদস্য গ্রেপ্তার, বিস্ফোরক জব্দ

প্রায় ৫ কেজি বিস্ফোরক, ১৫ ককটেল জব্দ
আরসা
কক্সবাজারে অভিযান চালিয়ে তিন আরসা সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‍্যাব। ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজার শহরে অভিযান চালিয়ে মিয়ানমারভিত্তিক সশস্ত্র গ্রুপ আরসার তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে আরসার লজিস্টিক প্রধান হাফিজ রহমত উল্লাহ (৩৫) রয়েছে বলে দাবি র‍্যাবের।

আজ রোববার র‌্যাব-১৫ এর কমান্ডিং অফিসার (সিও) সাজ্জাদ হোসেন জানান, সকালে একটি বাড়ি ঘেরাও করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। বাকি দুজন হলেন-  উখিয়ার কুতুপালং শরণার্থী শিবিরের ৫ নম্বর ক্যাম্পের মঞ্জুর আলম (২৩) ও নুরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আরসার লজিস্টিক প্রধানের আস্তানা হিসেবে ব্যবহৃত বাড়ি থেকে প্রায় ৫ কেজি বিস্ফোরক, ১৫ ককটেল, আইডি তৈরির সরঞ্জাম, ১.৫ কেজি পারদ, একটি ওয়াকি-টকি, ৫৩টি সার্কিট, সামরিক ইউনিফর্মের কাপড় উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার দেওয়া গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ভোর থেকে কক্সবাজার শহরের কলাতলী এলাকার আদর্শগ্রামে একটি বাড়ি ঘেরাও করে র‌্যাব সদস্যরা।

তিনি আরও বলেন, সকাল ৯টার দিকে গ্রেপ্তার ও বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা জানান, বর্মি, রোহিঙ্গা, বাংলা, ইংরেজি, উর্দু ও আরবিসহ ছয়টি ভাষায় পারদর্শী রহমত ২০০০ সালে অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করে টেকনাফের শাহ পরীর দ্বীপে বসবাস শুরু করে। তিনি ২০১৪ সালে বাংলাদেশ থেকে মিয়ানমারে চলে যান এবং তার সম্পত্তি বিক্রি করে থাইল্যান্ড হয়ে মালয়েশিয়ায় যান।

২০১৮ সালে তিনি আবার বাংলাদেশে ফিরে আসেন এবং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসবাস শুরু করেন।

গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

Comments