‘যারা নির্বাচনী দায়িত্বে আছেন, তাদের ৬০ শতাংশ ভোট কাস্টিং দেখাতে বলা হয়েছে’

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রেসিডেন্ট অলি আহমদ বলেছেন, ২০২৪ সালের নির্বাচনে আমাকে মন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু আমি রাজি হইনি। 
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন এলডিপি প্রেসিডেন্ট অলি আহমদ। ছবি: স্টার

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রেসিডেন্ট অলি আহমদ বলেছেন, ২০২৪ সালের নির্বাচনে আমাকে মন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু আমি রাজি হইনি। 

আজ শুক্রবার দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

অলি আহমদ বলেন, 'এবারের নির্বাচনেও ছয়টি গ্রুপ আলাদা আলাদাভাবে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করে। আমাকে দুটি নির্বাচনী আসন থেকে নির্বাচিত করবে। আমাকে মন্ত্রিত্ব দেওয়া হবে এবং আমার দল থেকে আরও কয়েকজনকে মনোনয়ন দেওয়া হবে। নির্বাচনের জন্য যত টাকা প্রয়োজন হবে, এসব পেমেন্ট করা হবে।' 

তিনি বলেন, '২০১৮ সালে আমাকে অনুরূপ প্রস্তাব দিয়েছিল বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে। মন্ত্রিত্ব দেওয়া হবে, টাকা দেওয়া হবে। আমি রাজী হয়নি।' 

ভোট বর্জনের আহ্বান জানিয়ে অলি আহমদ বলেন, 'ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার জন্য প্রত্যেকের ঘরে গিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে। ভোটকেন্দ্রে না গেলে মামলা-হামলা করবে বলা হচ্ছে। গরিবদের ৫০০ ও এক হাজার টাকা দেওয়া হবে। যারা (সরকারি কর্মকর্তা) নির্বাচনী দায়িত্বে আছেন, তাদের ৬০ শতাংশ ভোট কাস্টিং দেখাতে বলা হয়েছে।' 

Comments

The Daily Star  | English

Pakistan's World Cup failure down to poor batting, Babar says

Pakistan captain Babar Azam said on Sunday the team's batting let them down at the Twenty20 World Cup and apologised to fans for failing to reach the Super Eight stage.

9m ago