নির্বাচন

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন: জোর প্রতিদ্বন্দ্বিতা ১৯ প্রার্থীর

আগামীকাল সোমবার নারায়ণগঞ্জসহ সারাদেশের ৬১ জেলায় জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ৫টি কেন্দ্রে ভোট দেবেন ৫ উপজেলার ৬১০ জন ভোটার।
Narayanganj Map
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

আগামীকাল সোমবার নারায়ণগঞ্জসহ সারাদেশের ৬১ জেলায় জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ৫টি কেন্দ্রে ভোট দেবেন ৫ উপজেলার ৬১০ জন ভোটার।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, জেলা সদরে ২টি এবং ৩ উপজেলায় ৩টি ভোটকেন্দ্র রাখা হয়েছে।

কেন্দ্রগুলো হলো- শহরের চাষাঢ়ায় অবস্থিত নারায়ণগঞ্জ কালেক্টরেট প্রিপারেটরি স্কুল, সদর উপজেলার সস্তাপুর এলাকার কমর আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সোনারগাঁ উপজেলার আমিনপুর বাজার এলাকার সোনারগাঁ জিআর ইনস্টিটিউট, আড়াইহাজার উপজেলার আড়াইহাজার পাইলট মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় এবং রূপগঞ্জ উপজেলার ব্রাহ্মণগাঁও এলাকার সহিতুন্নেছা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।

এসব কেন্দ্রে ভোট দেবেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন, সদর উপজেলা ও বন্দর উপজেলা, সোনারগাঁ উপজেলা, আড়াইহাজার উপজেলা এবং রূপগঞ্জ উপজেলার স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জের সিটি করপোরেশন ও ৫ উপজেলার ৬১০ জন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ভোটার হয়েছেন।

জেলা পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডে অর্থাৎ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকায় মেয়র, সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর মিলিয়ে মোট ভোটার রয়েছেন ৩৭ জন। তাদের মধ্যে ১০ জন নারী এবং ২৭ জন পুরুষ ভোটার। ২ নম্বর ওয়ার্ড অর্থাৎ সদর ও বন্দর উপজেলায় ১৬২ জন ভোটার। তাদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১২৪ জন ও নারী ৩৮ জন। ৩ নম্বর ওয়ার্ডে সোনারগাঁ উপজেলার ১৩২ জন জনপ্রতিনিধি ভোট দেবেন। তাদের মধ্যে ১০২ জন পুরুষ এবং ৩০ জন নারী। ৪ নম্বর ওয়ার্ডে আড়াইহাজার উপজেলার ১৫৯ জন জনপ্রতিনিধি ভোট দেবেন। তাদের মধ্যে ১২২ জন পুরুষ ও ৩৭ জন নারী ভোটার। ৫ নম্বর ওয়ার্ডে রূপগঞ্জ উপজেলার ১২০ জন ভোটারের মধ্যে ৯১ জন পুরুষ এবং ২৯ জন নারী।

ইতোমধ্যে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মহানগর আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি চন্দন শীল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া ৪ ও ৫ নম্বর ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে দু'জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। সোমবার ৩টি সাধারণ সদস্য পদ ও দু'টি সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ভোটগ্রহণ চলবে। ৫ পদের জন্য লড়ছেন ১৯ জন প্রার্থী।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন প্রার্থীরা। সাধারণ সদস্য পদে ১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মো. আলাউদ্দিন 'টিউবওয়েল', জাহাঙ্গীর আলম 'বৈদ্যুতিক পাখা', মজিবুর রহমান 'ঘড়ি', সায়েম রেজা 'হাতি' প্রতীক পান। ৪ প্রার্থীর মধ্যে জাহাঙ্গীর আলম ও মজিবুর রহমান রহমানের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা জোরদার হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। জাহাঙ্গীর আলম নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর সমর্থন পাচ্ছেন। অন্যদিকে মজিবুর রহমান নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের ঘনিষ্ঠ অনুসারী।

২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে আমির উল্লাহ রতন 'হাতি', রাসেল শিকদার 'ঘুড়ি', জাহাঙ্গীর হোসেন 'তালা', মোবারক হোসেন 'ক্রিকেট ব্যাট', মাছুম আহম্মেদ 'বৈদ্যুতিক পাখা', মোস্তফা হোসেন চৌধুরী 'অটোরিকশা' প্রতীক বরাদ্দ পান। এই ওয়ার্ডের প্রার্থী মাছুম আহম্মেদ বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। তার পক্ষে সমর্থন রয়েছে শামীম ওসমান পরিবারের।

৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মোস্তাফিজুর রহমান 'হাতি', আবু নাঈম ইকবাল 'তালা প্রতীক পান। আবু নাঈম ইকবালের পক্ষে রয়েছেন সোনারগাঁ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা এবং মোস্তাফিজুর রহমানের পক্ষে সমর্থন দিচ্ছেন সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত।

অন্যদিকে সংরক্ষিত নারী সদস্যের ১ নম্বর ওয়ার্ডে সাদিয়া আফরিন 'বই', আছিয়া খানম সুমি 'দোয়াত কলম', নাছরিন আক্তার 'হরিন' প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। এই প্রার্থীদের মধ্যে সাদিয়া আফরিন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানির স্ত্রী এবং ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বক্তবালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলীর মেয়ে। সানি ও শওকত আলী দু'জনই সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের অনুসারী। তাই ভোটের মাঠে শক্ত অবস্থানে আছেন সাদিয়া আফরিন।

২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে নূর জাহান 'বই', হাওয়া বেগম 'মাইক', শীলা রানী পাল 'টেবিল ঘড়ি', শাহিদা মোশারফ 'দোয়াত কলম' প্রতীক পেয়েছেন। এ আসনে শীলা রানী পাল রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক, শাহিদা মোশারফ আড়াইহাজার উপজেলার দুপ্তারা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং নূর জাহান সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সভাপতি। তিন প্রার্থীর অবস্থানই বেশ শক্ত। শীলা রানী পাল ও নূর জাহান গতবারও সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য ছিলেন। এদিকে শাহিদা মোশারফ সমর্থন পাচ্ছেন আড়াইহাজার আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর। অন্যদিকে শীলা রানী পালকে সমর্থন দিচ্ছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী এবং রূপগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক)।

Comments

The Daily Star  | English

Economy with deep scars limps along

Business and industrial activities resumed yesterday amid a semblance of normalcy after a spasm of violence, internet outage and a curfew that left deep wounds in almost all corners of the economy.

6h ago