রংপুরে সারের দাবিতে বিক্ষোভ, ১ ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ

ইউরিয়া সারের দাবিতে রংপুরের পীরগঞ্জে বিক্ষোভ করেছেন কৃষক। আজ শনিবার সকালে রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের পীরগঞ্জ বাজারে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে প্রায় কয়েকশ কৃষক। এ সময় তারা প্রায় ১ ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন।
ইউরিয়া সারের দাবিতে রংপুরের পীরগঞ্জে বিক্ষোভ করেছেন কৃষক। ছবি: সংগৃহীত

ইউরিয়া সারের দাবিতে রংপুরের পীরগঞ্জে বিক্ষোভ করেছেন কৃষক। আজ শনিবার সকালে রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের পীরগঞ্জ বাজারে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে প্রায় কয়েকশ কৃষক। এ সময় তারা প্রায় ১ ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন।

অবরোধের ফলে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের ২ পাশে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পুলিশের অনুরোধে অবরোধ তুলে নেন কৃষক।

পীরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুব রহমান বলেন, 'আজ সকাল সাড়ে ৯টায় স্থানীয় কয়েকশ কৃষক উপজেলা পরিষদের সামনে সারের দাবীতে রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করেন। তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন সাধারণ মানুষও। এ সময় সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।'

তিনি আরও বলেন, 'উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিরোদা রানী রায়, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. সাদেকুজ্জামান ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে সার দেওয়ার আশ্বাস দিলে অবরোধ প্রত্যাহার করেন কৃষক। এরপর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।'

আন্দোলনকারী কৃষক এহসামুল হক, নাসির উদ্দীন, কবিরুল ইসলামসহ অনেকের অভিযোগ, গত ১০ দিন ধরে খুচরা দোকান ও ডিলারের কাছে ধর্না দিয়ে ১ কেজি ইউরিয়া সারও জোগাড় করতে পারেননি তারা।

তারা বলেন, দেড় হাজার টাকা দিয়েও ইউরিয়ার বস্তা পাওয়া যাচ্ছে না। এমনিতেই অনাবৃষ্টির কারণে আমন চাষ পিছিয়েছে ২০ দিন। কষ্ট করে সেচ দিয়ে চারা রোপণ করতে পারলেও এখন সার পাওয়া যাচ্ছে না। জমিতে সার দিতে না পারলে ফসল পুষ্ট হবে না। ফলনে প্রভাব পড়বে। তাই বাধ্য হয়ে আন্দোলনে নামতে হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিলেও সার না পেলে পরবর্তীতে বড় আন্দোলন গড়ে তোলার হুশিয়ারি দেন কৃষক।

এ ব্যাপারে জানতে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাদেক হোসেনকে বারবার মোবাইলে কল করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

Comments