গণসমাবেশ: পথে ৫০০ নেতাকর্মীর ওপর হামলার অভিযোগ বিএনপির

বরিশালে বিএনপির গণসমাবেশে যাওয়া-আসার পথে অন্তত ৫০০ নেতাকর্মীর ওপর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছেন বলে অভিযোগ তুলেছে বিএনপি।
রোববার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন বিভাগীয় গণসমাবেশের সমন্বয়কারী এ জেড এম জাহিদ হাসান ও যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী সোহেল। ছবি: স্টার

বরিশালে বিএনপির গণসমাবেশে যাওয়া-আসার পথে অন্তত ৫০০ নেতাকর্মীর ওপর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছেন বলে অভিযোগ তুলেছে বিএনপি।

আজ রোববার দুপুরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন বিভাগীয় গণসমাবেশের সমন্বয়কারী এ জেড এম জাহিদ হাসান ও যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী সোহেল।

এদিকে বরিশালে বিএনপির সমাবেশের পর অন্তত দুই শতাধিক বিএনপি কর্মীকে আসামি করে ভোলা মডেল থানা ও গৌরনদী মডেল থানায় ২টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় এ পর্যন্ত ৭ জন গ্রেপ্তার হয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতারা বলেন, গণসমাবেশে যোগ দিতে আসার পথে ও ফিরে যাওয়ার পথে পটুয়াখালীর চর বিশ্বাস বিএনপি সভাপতি বাকের বিশ্বাস, পটুয়াখালী শাজাহানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের অন্তত ৫০০ নেতাকর্মীর ওপর হামলা হয়েছে। অনেককে আটক করা হয়েছে।

গৌরনদীর মাহিলারায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ইশরাক হোসেনের গাড়িবহরে হামলা ও ৭টি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। ইঞ্জিনিয়ার রিয়াজুল ইসলামসহ বহু নেতাকর্মীকে গাড়ি নিয়ে সমাবেশে আসতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেন তারা।

বিএনপি নেতারা জানান, নলছিটি বাজারে বিএনপি কর্মীদের দোকান খুলতে দেওয়া হচ্ছে না। সম্মেলন থেকে ফিরে যাওয়ার পথে মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য সুলতানা আহম্মেদকে সদরঘাট থেকে আটক করা হয়েছে।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী সোহেল বলেন, 'আমরা যে সময়ে প্রেস কনফারেন্স করছি সেই সময়ে নলছিটি বাজারে বিএনপি নেতাকর্মীদের দোকানপাট খুলতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। পটুয়াখালী ও কলাপাড়ায় বিএনপি অফিস ভাঙচুর করা হয়েছে।'

'এসব হামলা অপ্রত্যাশিত ও অনাকাঙ্ক্ষিত, আমরা নিশ্চয়ই পরবর্তীতে আদালতে মামলা করব,' বলেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English

Create right conditions for Rohingya repatriation: G7

Foreign ministers from the Group of Seven (G7) countries have stressed the need to create conditions for the voluntary, safe, dignified, and sustainable return of all Rohingya refugees and displaced persons to Myanmar

23m ago