বাংলাদেশ

বুড়িমারী স্থলবন্দর পরিদর্শন করল ভুটানের প্রতিনিধি দল

লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর পরিদর্শন করেছে ভুটান সরকারের একটি প্রতিনিধি দল। ভুটান ও বাংলাদেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটাতে দুই দেশের প্রধান বাণিজ্যিক রুটগুলো পরিদর্শনের অংশ হিসেবে ১৫ সদস্যের দলটি আজ বুড়িমারী স্থলবন্দর পরিদর্শন করেন।
লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দরে ভুটান সরকারের ১৫ সদস্যের প্রতিনিধি দল। ছবি: সংগৃহীত

লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর পরিদর্শন করেছে ভুটান সরকারের একটি প্রতিনিধি দল। ভুটান ও বাংলাদেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটাতে দুই দেশের প্রধান বাণিজ্যিক রুটগুলো পরিদর্শনের অংশ হিসেবে ১৫ সদস্যের দলটি এই স্থলবন্দর পরিদর্শন করেন।

বুধবার দুপুরে স্থলবন্দর পরিদর্শন শেষে ভুটানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অর্থনৈতিক ও কূটনৈতিক বিভাগের চিফ মিস. শেওয়াং লাদেনের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি বুড়িমারী স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যৌথ সভায় অংশগ্রহণ করে।

সভায় বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দেন বিজিবির ৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের তিস্তা ব্যাটালিয়ন-২ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মীর হাসান শাহরিয়ার মাহমুদ। এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ভুটানের রাষ্ট্রদূত মি. কেনছো থিংলে, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এস এম ফেরদৌস আলম, যুগ্ম-সচিব জাহাঙ্গীর কবির, পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাজমুল হক সুমন, বুড়িমারী স্থলবন্দরের সহকারী পরিচালক (ট্রাফিক) গিয়াস উদ্দিনসহ স্থলবন্দর ও শুল্ক স্টেশনের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে বাণিজ্য সম্প্রসারণে ভুটানের প্রতিনিধি দলটি ৫টি সুপারিশ করেছে। এসব সুপারিশের মধ্যে আছে বুড়িমারী স্থলবন্দরের ইয়ার্ড সম্প্রসারণ, স্থলবন্দরে প্রবেশের রাস্তা প্রশস্ত করা, বুড়িমারী-চ্যাংড়াবান্ধা রেল সংযোগ স্থাপন, আমদানি শুল্ক কমানো, ভুটানি পণ্যবাহী ট্রাক আনলোড পরবর্তী ফেরত যাওয়ার সময়সীমা বৃদ্ধি। তারা বলেন, সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন হলে বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে ভুটানের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য অনেকগুণ বাড়বে।

Comments