পারিবারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা যাবে জেলা জজ মর্যাদার সব কোর্টে

বুধবার জাতীয় সংসদে এ সংক্রান্ত একটি বিল উত্থাপন করা হয়েছে।
যুবলীগ নেতা জামাল উদ্দিন হত্যা

পারিবারিক আদালত আইনের অধীনে বিচারিক আদালতে হওয়া মামলার রায়ের বিরুদ্ধে জেলা জজ মর্যাদার অন্যান্য আদালতে আপিল করা যাবে। 

আজ বুধবার জাতীয় সংসদে এ সংক্রান্ত একটি বিল উত্থাপন করা হয়েছে।

বিলে পারিবারিক আদালতের মামলার কোর্ট ফি ৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০০ টাকার প্রস্তাব করা হয়েছে।

পারিবারিক আদালত বিল ২০২৩ শিরোনামে বিলটি সংসদে উত্থাপন করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। 

পরে বিলটি পরীক্ষা করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো হয়।  

গত বছরের ৩ জুলাই বিলটি মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পায়। সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী বাতিল হওয়ায় ফ্যামিলি কোর্টস অর্ডিন্যান্স, ১৯৮৫ বাতিল করে বাংলায় নতুন আইন করতে বিলটি আনা হয়েছে।

আগের আইনে বিচারিক আদালতে হওয়া এ সংক্রান্ত মামলার আপিল শুধু জেলা জজের আদালতে করার সুযোগ ছিল। এতে জেলা জজের ওপর মামলা শুনানির চাপ বাড়ছিল। 

মামলার চাপ কমাতে আইনে এই সংশোধনী আনা হয়েছে। 

প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়েছে, জেলা পর্যায়ে আরও জজ আছেন, নারী-শিশু বা শ্রম আদালত। সরকার গেজেট জারি করে কোনো জেলাতে আপিলের জন্য অতিরিক্ত মামলা থাকলে, জেলা জজ পর্যায়ের অন্যান্য যে জজরা আছেন, তাদেরও আপিল আদালত হিসেবে বিবেচনা করা যাবে।

উত্থাপিত বিলে বলা হয়, এই আদালতে মামলার কোর্ট ফি বর্তমানে ৫০ টাকা। এই ফি বাড়িয়ে ২০০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। 

এতে দাম্পত্য কলহ, তালাক, বিয়ে এবং শিশুদের ভরণপোষণের বিষয়গুলো আছে।

Comments