দেশের স্থিতিশীলতা বিএনপি-জামায়াতের সহ্য হচ্ছে না: আইনমন্ত্রী

‘কোনোভাবেই কোনো ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়ে বিএনপি যদি আবার ক্ষমতায় আসে, বাংলাদেশ আর বাংলাদেশ থাকবে না।’
আইন,বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। স্টার ফাইল ছবি

দেশের স্থিতিশীলতা বিএনপি-জামায়াতের সহ্য হচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

আজ সোমবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদ পুনর্মিলনী উপলক্ষে আয়োজিত মত-বিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এমন মন্তব্য করেন। আখাউড়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মত-বিনিময় সভায় আইনমন্ত্রী ঢাকা থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হন।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, 'আমরা স্বাধীনভাবে এবং অত্যন্ত স্থিতিশীলভাবে জীবনযাপন করছি। বিএনপি-জামায়াতের কিন্তু এই জিনিসটা সহ্য হচ্ছে না। তারা কিন্তু অস্থিতিশীল অবস্থা এবং দেশটাতে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করছে। কোনোভাবেই কোনো ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়ে বিএনপি যদি আবার ক্ষমতায় আসে, বাংলাদেশ আর বাংলাদেশ থাকবে না।'

তিনি বলেন, 'আমাদেরকে এখন জনগণের কাছে যেতে হবে। এই অবস্থা আর যাতে না হতে পারে, সেটা আপনাদেরকেই ব্যবস্থা করতে হবে। জনগণকে সেই কথাটা বুঝাইতে হবে। আপনারা বঙ্গবন্ধুর সৈনিক। আপনারা জননেত্রী শেখ হাসিনার শক্তি। আমি আশা করব, আপনারা স্ব স্ব জায়গায় থেকে এই বিশৃঙ্খলা ও অস্থিতিশীল করার চেষ্টা যারা করছে বিএনপি-জামায়াত—তাদের প্রতিহত করবেন।'

এ বছরের ডিসেম্বর বা আগামী বছরের জানুয়ারিতে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী আওয়ামী লীগের আমলে হওয়া উন্নয়নগুলো জনগণের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশ দেন।

আনিসুল হক বলেন, 'আসন্ন ৬ মাসের মধ্যে হয় ২০২৩ সালের ডিসেম্বরে, না হয় ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে আমাদের সাধারণ নির্বাচন (জাতীয় সংসদ নির্বাচন) অনুষ্ঠিত হবে। আমি আশা করব, আপনারা সেই লক্ষ্য মনে রেখে জনগণকে সেবা করবেন। ইনশাল্লাহ আমি আবার নৌকার প্রার্থী হিসেবে আপনাদের সঙ্গে জনগণের কাছে ভোট চাইব।'

সেই সময় আনিসুল হক তার নিজ সংসদীয় এলাকায় (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ আসন) উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বলেন, 'এই ১০ বছরে কসবা-আখাউড়ার উন্নয়নের যে ফিরিস্তি আপনাদেরকে দিতে পারি, সেই উন্নয়নের ফিরিস্তি শেষ হওয়ার মতো না। আপনারা জানেন আখাউড়ায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনের উন্নতি হচ্ছে। আখাউড়া-আগরতলা রেললাইন হচ্ছে। কসবা-আখাউড়ায় আমার হিসাবে এক হাজার ৫২৫ জনকে সরকারি চাকরি দেওয়া হয়েছে। ৭০০-৮০০ জনকে নকল নবিশ পদে চাকরি দেওয়া হয়েছে। দুইটা জিনিস যোগ দেন, দেখবেন ২ হাজার ৩০০ জনের কর্মসংস্থান আমি করেছি। অনেক কিছু দিয়েছি আপনাদেরকে। আরও দিতে পারব।'

মত-বিনিময় সভায় আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English

Shipping cost keeps upward trend as Red Sea Crisis lingers

Shafiur Rahman, regional operations manager of G-Star in Bangladesh, needs to send 6,146 pieces of denim trousers weighing 4,404 kilogrammes from a Gazipur-based garment factory to Amsterdam of the Netherlands.

1h ago