বাংলাদেশ

অভিবাসী কর্মীদের অভিযোগ নিষ্পত্তিতে পৃথক সেল গঠনের জন্য সুপারিশ

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি এবং অভিবাসন ও উন্নয়ন সংক্রান্ত সংসদীয় ককাসের সদস্যদের এক আলোচনা সভায় এ সুপারিশ করা হয়।
'বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসন আইন ২০১৩ এর আওতায় আরবিট্রেশনের মাধ্যমে অভিবাসী কর্মীদের ন্যায়বিচারের সুযোগ' শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। ছবি: সংগৃহীত

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের বিভিন্ন ক্ষেত্রে ন্যায়বিচার নিশ্চিতে পৃথক আরবিট্রেশন সেল গঠনের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি এবং অভিবাসন ও উন্নয়ন সংক্রান্ত সংসদীয় ককাসের সদস্যদের এক আলোচনা সভায় এ সুপারিশ করা হয়।

'বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসন আইন ২০১৩ এর আওতায় আরবিট্রেশনের মাধ্যমে অভিবাসী কর্মীদের ন্যায়বিচারের সুযোগ' শীর্ষক এ আলোচনা সভা আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি।

সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট সালমা আলীর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও অভিবাসন সংক্রান্ত সংসদীয় ককাসের উপদেষ্টা আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।  

আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, 'অভিবাসী কর্মীরা দেশের অর্থনীতির চাকা সচলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন। কিন্তু তাদের জন্য জাতীয় বাজেট খুবই সামান্য। এছাড়া অভিবাসী কর্মীদের অভিযোগ নিষ্পত্তির জন্য আলাদা ও স্বাধীন সেল নাই।'

বিএমইটিতে আলাদা আরবিট্রেশন সেল গঠন ও কার্যকরের জন্য প্রয়োজনে বাজেট রাখা, পাশাপাশি উপজেলা পর্যায়ে আরবিট্রেশনের ব্যবস্থা ও সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়ার ওপর গুরুত্ব দেন তিনি।

অভিবাসী কর্মীদের ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের বিষয়ে ধন্যবাদ জানিয়ে সালমা আলী বলেন, 'প্রতারণার শিকার অভিবাসী কর্মীদের সমস্যা সমাধানে বা প্রতিকারের জন্য বিএমইটির অধীনে সালিশের জন্য আলাদা দক্ষ ও প্রশিক্ষিত লোকবল থাকলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কাঙ্ক্ষিত সেবা দেওয়া সম্ভব হবে।' 

আলোচনা সভায় বাংলাদেশে সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের প্রতিনিধি নাজিয়া হায়দার, বিএমইটির কর্মকর্তা, হেলভেটাস বাংলাদেশ, আইওএম, অকুপ, ওয়ারবিসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

Comments