নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরুতে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কোর্স চালু না করার পরামর্শ শিক্ষামন্ত্রীর

‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যদি অ্যাকাডেমিক স্ট্যান্ডার্ড মনিটরিংয়ে কাজ করতে পারে, অন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কেন করতে পারবে না?’
নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরুতে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কোর্স চালু না করার পরামর্শ শিক্ষামন্ত্রীর
শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। ফাইল ফটো

নতুন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শুরুতে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কোর্স চালু না করার পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী।

সোমবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের মিলনায়তনে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সংগঠন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় তিনি এ পরামর্শ দেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, নতুন নতুন বিশ্ববিদ্যালয় যেগুলো হচ্ছে, সেগুলো কেন শুরুতেই আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কোর্সগুলো করছে? সেই জেলায় ইতোমধ্যে যেসব সরকারি কলেজ আছে, তাদের আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কোর্সগুলো মনিটরিং করুক। আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কোর্সগুলো মনিটরিং করবে এবং পোস্টগ্র্যাজুয়েট কোর্স বিশ্ববিদ্যালয় আলাদা করে করবে। শুরুটা নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যে তো একটা চ্যালেঞ্জিং টাইম। একটি ফুল সেটআপ নিয়ে সেখান থেকে তারা রিসোর্স ডেভেলপ করুক।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছিলেন সব কলেজ বা শতবর্ষী কলেজগুলোকে রেসপেক্টিভ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্ত করে অ্যাকাডেমিক মনিটরিং নিশ্চিত করতে। এই বিষয়ে উদ্যোগ নিতে তিনি সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিদের পরামর্শ দেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ওপেন ইউনিভার্সিটি সারাদেশের নন-ফরমাল এডুকেশনের অ্যাকাডেমিক মনিটরিংয়ের কাজটা করছে। তাহলে কেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম কলেজর অ্যাকাডেমিক মনিটরিংয়ের কাজ করতে পারবে না? এক সময় তো করত। পূর্বে যদি করার ক্যাপাসিটি থেকে থাকে, তাহলে এখন তো সিস্টেম আরও বাড়ার কথা।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই উদ্যোগ নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাত কলেজকে অন্তর্ভুক্ত করেছেন। সেখানেও হয়তো চ্যালেঞ্জ আছে। সেই চ্যালেঞ্জটা তো আমরা অতিক্রম করছি। শিক্ষার্থীরা রাস্তা বন্ধ করেছে।   কিন্তু আমরা নড়িনি। সাত কলেজের মান ইম্প্রুভ হয়েছে।

'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যদি অ্যাকাডেমিক স্ট্যান্ডার্ড মনিটরিংয়ে কাজ করতে পারে, অন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কেন করতে পারবে না?', বলেন তিনি।

এসব ক্ষেত্রে আইন সংশোধন করতে হলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় তা করবে বলেও ইঙ্গিত দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা তুলে ধরে মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, যেসব বিশ্ববিদ্যালয় জেলা পর্যায়ে আছে, সেসব জেলাগুলোয় যে সরকারি কলেজগুলো আছে, তাদের অ্যাক্যাডেমিক মনিটরিংয়ের কাজটা করবে ওইসব বিশ্ববিদ্যালয়।

Comments