বাংলাদেশ
মুন্সীগঞ্জ

ফুলদী নদী পাড়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

‘আগামীকাল সকাল থেকে আবারও উচ্ছেদ অভিযান শুরু হবে। উপজেলা পরিষদ সড়ক ধরে খেয়াঘাট পর্যন্ত যতোগুলো অবৈধ স্থাপনা গড়ে উঠেছে সব উচ্ছেদ করা হবে।’
মুন্সীগঞ্জে ফুলদী নদীর পূর্ব পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান। ছবি: সংগৃহীত

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার রসুলপুর খেয়াঘাট এলাকায় ফুলদী নদীর পূর্ব পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান পরিচালনা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডাব্লিউটিএ)। এ সময় নদী দখল করে নির্মাণ করা ৩৫টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়া হয়।

আজ বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় এই উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়।

বিআইডব্লিউটিএ সূত্র জানায়, নদীর ইমামপুর ইউনিয়নের অংশে পিলার উঠিয়ে এবং লাল পতাকা টানিয়ে নদীর জায়গা চিহ্নিত করা হয়। এরপর অবৈধ দখলদারদের নিজ উদ্যোগে স্থাপনা সরিয়ে নিতে টানা দুদিন মাইকিং করা হয়।

বিআইডব্লিউটিএর মেঘনা ঘাট উপ-পরিচালক শরিফুল ইসলাম বলেন, 'আজ প্রথম দিনে ইমামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিতু খাঁনের দোতলা আবাসিক ভবন এবং আরও ৩৪টি দোকানপাট উচ্ছেদ করা হয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, 'আগামীকাল সকাল থেকে আবারও উচ্ছেদ অভিযান শুরু হবে। উপজেলা পরিষদ সড়ক ধরে খেয়াঘাট পর্যন্ত যতোগুলো অবৈধ স্থাপনা গড়ে উঠেছে সব উচ্ছেদ করা হবে।'

অভিযানের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাসলিমা আক্তার বলেন, 'হাইকোর্টের নির্দেশ বাস্তবায়নে আমরা এখানে এসেছি। দুদিনের অভিযানের প্রথম দিন বিআইডব্লিউটিএর জায়গা দখল করে নির্মাণ করা ৩৫টি স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।'

Comments