এমভি আব্দুল্লাহর সবশেষ অবস্থান সম্পর্কে যা জানা গেল

জাহাজটির অবস্থান ট্র্যাক করছে এমন নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাতে বাংলাদেশ মার্চেন্ট মেরিন অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন জাহাজের অবস্থান সম্পর্কে জানিয়েছে।
সোমালিয়ার গদবজিরান উপকূলে নেওয়া হয়েছে এমভি আব্দুল্লাহকে। ছবি: সংগৃহীত

সোমালিয়ান জলদস্যুদের হাতে জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহ গতকাল সোমালিয়ার গারাকাদ বন্দরের কাছে নোঙর করে।

আজ শুক্রবার জাহাজটির নোঙর তুলে ফেলা হয় এবং দুপুর থেকে সেটিকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়।

সন্ধ্যা পর্যন্ত জাহাজের অবস্থান নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে রাতে বাংলাদেশ মার্চেন্ট মেরিন অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএমওএ) পক্ষ থেকে এমভি আব্দুল্লাহর সর্বশেষ অবস্থান জানানো হয়েছে। 

বিএমএমওএ'র সাধারণ সম্পাদক মো. শাখাওয়াত হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'গতকাল জাহাজটি যেখানে নোঙর করা ছিল, সেখান থেকে আজ ৪৫-৫০ নটিক্যাল মাইল উত্তর দিকে সরিয়ে সোমালিয়ার গদবজিরান উপকূলে নেওয়া হয়েছে।'

তিনি বলেন, 'জাহাজটিকে গদবজিরান শহর থেকে ৪ নটিক্যাল মাইল দূরে নোঙর করা হয়েছে।'

শাখাওয়াত হোসেন আরও বলেন, 'নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে আমরা এ তথ্য পেয়েছি, যারা জাহাজটির অবস্থান ট্র্যাক করছে।'

গত মঙ্গলবার ভারত মহাসাগরে এমভি আব্দুল্লাহর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে জাহাজের ২৩ ক্রুদের জিম্মি করে সোমালিয়ার জলদস্যুরা। গতকাল বৃহস্পতিবার জাহাজটিকে সোমালিয়ার গারাকাদ বন্দর থেকে ২০ নটিক্যাল মাইল দূরে নোঙর করা হয়।

জাহাজটির মালিক প্রতিষ্ঠান কেএসআরএম গ্রুপের মিডিয়া অ্যাডভাইজার মিজানুল ইসলাম আজ সন্ধ্যায় ডেইলি স্টারকে বলেন, 'হয়ত আগের অবস্থানে জাহাজ নোঙর করাকে নিরাপদ মনে করছে না দস্যুরা। তাই হয়ত সরিয়ে নিচ্ছে।'

জাহাজের নাবিকরা বা জলদস্যুরা কেউই আজ তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি বলে জানান তিনি।

ভারতীয় নৌবাহিনী আজ জানিয়েছে, জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহকে সহায়তা করতে কাছাকাছি এলাকায় একটি ভারতীয় যুদ্ধজাহাজ ও একটি দূরপাল্লার সামুদ্রিক টহল উড়োজাহাজ অবস্থান করছে।

গতকাল ইউরোপীয় ইউনিয়ন জানায়, এমভি আব্দুল্লাহর ওপর নজর রাখতে ইইউ'র একটি জাহাজ মোতায়েন করা হয়েছে।

Comments