‘রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত শিশু-কিশোরদের ফোন থেকে দূরে রাখতে হবে’

পেশায় নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞ প্রাণ গোপাল জানান, মোবাইল ফোনের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে শিশু-কিশোরদের ক্ষতি হওয়ার প্রমাণ তিনি তার রোগীদের মধ্যেও পাচ্ছেন।
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
জাতীয় সংসদ ভবন। ছবি: স্টার ফাইল ফটো

মোবাইল ফোনের অপব্যবহারের কারণে নতুন প্রজন্ম প্রতিবন্ধী হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করে সরকার দলীয় এমপি প্রাণ গোপাল দত্ত রাতে শিশু-কিশোরদের মোবাইল ফোন থেকে দূরে রাখার উপায় খুঁজতে বলেছেন।

আজ শনিবার জাতীয় সংসদে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে কুমিল্লা-৭ আসনের এই এমপি বলেন, রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত প্রত্যন্ত গ্রামীণ অঞ্চলে মোবাইল টাওয়ারগুলো নিষ্ক্রিয় রাখার উপায় খুঁজতে হবে।

পেশায় নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞ প্রাণ গোপাল জানান, মোবাইল ফোনের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে শিশু-কিশোরদের ক্ষতি হওয়ার প্রমাণ তিনি তার রোগীদের মধ্যেও পাচ্ছেন।

তিনি বলেন, 'আমার রোগীর সংখ্যা যে হারে বাড়ছে, ১০ বছর থেকে শুরু করে সবার একটাই কথা—কানে শোঁ শোঁ করে, ভোঁ ভোঁ করে। কানে শুনি না, লেখাপড়ায় মন দিতে পারি না। তাই এমন কোন কিছু আবিষ্কার করা উচিত যাতে করে রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত আমাদের তরুণ প্রজন্ম এ প্রযুক্তি হতে দূরে থাকবে।'

কালোটাকা সাদা করার সুযোগের বিরোধিতা

প্রস্তাবিত বাজেটে কর দিয়ে কালোটাকা সাদা করার সুযোগ রাখায় বৈধ কর দাতাদের কর প্রদানে অনীহা তৈরি হবে মন্তব্য করে প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন, বাজেটে সাদা ও কালোটাকা নিয়ে কথা হয়েছে। একজন কর দাতা হিসাবে আমার ৩০ লাখ টাকা থাকলে ৩০ শতাংশের বেশি কর দিতে হচ্ছে। কিন্তু যিনি গত বছর টাকা দেখাননি, ১৫ শতাংশ কর দিয়ে সেই অপ্রদর্শিত আয়কে বৈধ করে নিচ্ছেন। এতে করে সঠিক করদাতারা কর দিতে অনিচ্ছা পোষণ করবেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা সবসময় কালো ও সাদা টাকা নিয়ে কথা বলি। কিন্তু ইনফরমাল গ্রে-মানি (কর ফাঁকি সম্পর্কিত) অনানুষ্ঠানিক অর্থনীতি যার ট্যাক্স দেওয়া হয় না। যাকে কোনো অবস্থানে নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। সেটা নিয়ে অর্থমন্ত্রী বাজেট বক্তৃতায় কিছু বলেননি। গ্রে-মানি অপ্রদর্শিত আয়ের চেয়েও অনেক খারাপ। একে সংকুচিত না করা হলে অর্থ পাচার বন্ধ করা যাবে না।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য (ভিসি) বলেন, সবচেয়ে ব্যয়বহুল হচ্ছে স্বাস্থ্য খাত। যেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা, গবেষণা, চিকিৎসা উপকরণের দাম আকাশচুম্বী। নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের ভাষায় শিক্ষা ও চিকিৎসা থাকা উচিত সরকারি খাতে। একে বেসরকারিকরণ করা হলে শিক্ষা ও চিকিৎসার কোনো গুণগত মানের পরিবর্তন হয় না, তখন সেটা হয়ে যায় একটা পণ্য। এখন পৃথিবীজুড়ে এটা পণ্য হয়ে গেছে। সেক্ষেত্রে আপনার টাকা আছে চিকিৎসা পাবেন, টাকা না থাকলে চিকিৎসা পাবেন না। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষের জন্য দেখার কিছু নেই।

বাংলাদেশের চিকিৎসা সেবা উন্নতির জন্য চিকিৎসকদের বেতন ভাতার পাশাপাশি গবেষণা, আবাসনসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর প্রস্তাব করেন প্রাণ গোপাল দত্ত।

Comments

The Daily Star  | English

FBI confirms 'assassination attempt' on Donald Trump

As the shots rang out, Trump grabbed his right ear with his right hand, then brought his hand down to look at it before dropping to his knees behind the podium before Secret Service agents swarmed and covered him

49m ago