আমার জয়ে নিক্সন চৌধুরীর অবদান: জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

দলের মনোনীত প্রার্থীর বিরোধিতা করে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে গত ১৭ অক্টোবর ফরিদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন শাহাদাৎ হোসেন। তিনি তার বিজয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সনের প্রতি।
ফরিদপুরের ভাঙ্গায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নতুন ভবন উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন ও ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী। ছবি: সংগৃহীত

দলের মনোনীত প্রার্থীর বিরোধিতা করে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে গত ১৭ অক্টোবর ফরিদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন শাহাদাৎ হোসেন। তিনি তার বিজয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সনের প্রতি।

আজ মঙ্গলবার ফরিদপুরের ভাঙ্গায় একটি অনুষ্ঠানে শাহাদাৎ হোসেন বলেন, আমার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হওয়ার পিছনে কারও কৃতিত্ব বা অবদান থাকলে তিনি হলেন নিক্সন চৌধুরী। একদিকে সারা দেশ, অপরদিকে ছিলেন নিক্সন চৌধুরী। তার একাগ্রতা, নিষ্ঠায় আমি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান।

ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নতুন একটি ভবন উদ্বোধন উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে এই অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভাঙ্গা, সদরপুর ও চরভদ্রাসন নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র দলীয় সংসদ সদস্য ও যুবলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য নিক্সন চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে শাহাদাৎ বলেন, বাংলাদেশ ১৯৭১ সালে স্বাধীন হলেও ভাঙ্গা স্বাধীন হয়েছে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি। সেদিন এই আসন থেকে নিক্সন চৌধুরী নির্বাচিত হন। আগামী জাতীয় নির্বাচনেও নিক্সন চৌধুরী এই আসন থেকে নির্বাচিত হবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে শাহাদাৎ বলেন, 'আপনার সিট বাদে বাকি ২৯৯টি সিটের মধ্যে এ আসন থেকে নিক্সনকে সর্বোচ্চ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে আপনাকে উপহার দেবো।'

২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও দলের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহকে পরাজিত করে নির্বাচিত হন নিক্সন চৌধুরী। এর পরই ফরিদপুর-৪ সংসদীয় আসনভুক্ত ভাঙ্গা, সদরপুর ও চরভদ্রাসন উপজেলা আওয়ামী লীগ নিক্সনপন্থী ও কাজী জাফরউল্লাহপন্থী এই দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। গত ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনেও নিক্সন চৌধুরীর কাছে কাজী জাফরউল্লাহ পরাজিত হন।

প্রসঙ্গত, ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ ফারুক হোসেনকে ৬২৫-৫৪০ ভোটে হারিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শাহাদাৎ। শাহাদাৎ কেন্দ্রীয় যুবলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। তবে নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ হওয়ার আগে ২৪ সেপ্টেম্বর তিনি দলীয় পদে ইস্তফা দেন।

এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে গত ১০ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পত্র ঘোষণার আগ পর্যন্ত নিক্সন শাহাদাৎকে তার প্রার্থী ঘোষণা দিয়ে ভাঙ্গা ও সদরপুরে সভা করেন। তবে দলীয় প্রার্থী মনোনয়নের পর প্রকাশ্যে নিক্সনকে শাহাদাতের পক্ষে প্রচারণা চালাতে দেখা যায়নি।

অনুষ্ঠানে নিক্সন চৌধুরী জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাঙ্গার সন্তানকে ভোট দেওয়ায় নয় উপজেলা ও ছয় পৌরসভার জনপ্রতিনিধিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, আপনারা ভাঙ্গা ছেলেকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বানিয়েছেন। এর ফলে এ অঞ্চলে আরও উন্নয়নের পথ সুগম হয়েছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোহসীন উদ্দিন ফকির। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ফরিদপুরের সিভিল সার্জেন ছিদ্দীকুর রহমান, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (স্বাস্থ্য) গোলামি মাহাবুব, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) হেলালউদ্দিন ভুইয়া, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজিমউদ্দিন প্রমুখ।

Comments

The Daily Star  | English
IMF loan conditions

3rd Loan Tranche: IMF team to focus on four key areas

During its visit to Dhaka, the International Monetary Fund’s review mission will focus on Bangladesh’s foreign exchange reserves, inflation rate, banking sector, and revenue reforms.

10h ago