রাজনীতি

ফরিদপুরে বিএনপির সমাবেশ: বন্ধ থাকবে বিআরটিসির বাসও

ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের আগের দিন ও সমাবেশের দিন যাত্রীবাহী বাস ও মিনিবাসের পাশাপাশি রাষ্ট্রায়ত্ত পরিবহন বিআরটিসির বাস চলাচলও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
১১ ও ১২ নভেম্বর বিআরটিসির বাস চলাচলও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ছবি: স্টার

ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের আগের দিন ও সমাবেশের দিন যাত্রীবাহী বাস ও মিনিবাসের পাশাপাশি রাষ্ট্রায়ত্ত পরিবহন বিআরটিসির বাস চলাচলও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফরিদপুর নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থিত বিআরটিসি বাস কাউন্টার থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে আজ সকাল ৯টা থেকে জেলা বাস মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে শহরে মাইকিং করে বলা হয়, মহাসড়কে সব ধরনের অবৈধ ত্রি-হুইলার (নছিমন, করিমন, ভটভটি, মাহিন্দ্র, ব্যাটারিচালিত রিকশা, ইজিবাইক ও ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল) চলাচল বন্ধের দাবিতে আগামীকাল শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে শনিবার রাত ৮টা পর্যন্ত ফরিদপুরের সব পথে বাস ও মিনিবাস বন্ধ থাকবে।

ফরিদপুর বিআরটিসি বাস পরিবহনের সহকারী পরিচালক মোজাম্মেল হাসান মামুন বলেন, 'আগামী শুক্রবার ও শনিবার ফরিদপুর থেকে সব পথে বিআরটিসি বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।'

এর কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'বাস মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ ৩৮ ঘণ্টার ধর্মঘট আহ্বান করেছে। আমরাও এই দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ করে বাস চলাচল বন্ধ করছি। শুক্রবার ও শনিবার কাউন্টারও খুলবে না।'

তিনি আরও বলেন, 'আমরা সরকারের কাছ থেকে বাস ইজারা নিয়ে চালাই। তাই তাদের কথা শুনতে হয়। কিন্তু বাসের সঙ্গে শ্রমিকরা জড়িত। তাদের দাবিও উপেক্ষা করতে পারি না।'

ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের সমন্বয়কারী কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ বলেন, '২ দিন বিআরটিসি বাস বন্ধ করে সরকার প্রমাণ করলো, তারা যা চাইছে সেভাবেই সব পরিচালিত হচ্ছে। বাস বন্ধ রাখার একটাই উদ্দেশ্য, বিএনপির গণসমাবেশকে বাধা দেওয়া। কিন্তু বিএনপির সমাবেশে মানুষ আসবে। বাস বন্ধ করে তাদের এই জোয়ার ঠেকানো যাবে না। বাধা পেলেই মানুষ বেশি বের হয় বাঁধ ভাঙার জন্য।'

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

2h ago