রাজনীতি

সিরাজগঞ্জে আ. লীগের হামলায় বিএনপির ২০ নেতাকর্মী আহতের অভিযোগ

সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিএনপির নেতাকর্মীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। হামলায় বিএনপির ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।
কামারখন্দে বিএনপির দলীয় কার্যালয় থেকে বের হওয়ার পর নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী লীগের কর্মীরা হামলা চালায়। এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের বেশ কয়েকটি গাড়িও ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ বিএনপির। ছবি: সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিএনপির নেতাকর্মীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। হামলায় বিএনপির ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

আজ শুক্রবার দুপুরে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল কামারখন্দে বিএনপি কার্যালয় সংলগ্ন এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলায় দলের কেন্দ্রীয় নেত্রী আসিফা আশরাফী পাপিয়া, সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য রুমানা মাহামুদসহ অন্তত ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। 

বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে বিএনপির জনসভার প্রস্তুতি হিসেবে তারা দলীয় কার্যালয়ে সভা করছিলেন। সভা শেষে কার্যালয় থেকে বের হলে আওয়ামী লীগের কর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালায়।

এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ বিএনপির।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশকে সামনে রেখে সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি নেতাকর্মীদের সংগঠিত করতে জামতৈল বিএনপি কার্যালয়ে সভার আয়োজন করে। সভায় কেন্দ্রীয় নেতা আসিফা আশরাফী পাপিয়া উপস্থিত ছিলেন।'

তিনি বলেন, 'নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয় থেকে বের হওয়ার সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা অতর্কিতে হামলা চালায়।'

হামলার বিষয়ে পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ বাচ্চুর।

জানতে চাইলে কামারখন্দ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুর নবী ডেইলি স্টারকে বলেন, 'বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে ফাঁকা গুলি চালায়।'

পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে আছে বলে জানান ওসি।

তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে কামারখন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, 'বিএনপি নেতাকর্মীরা আমাদের কর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে।'
 

Comments