রাজনীতি

মাদ্রাসা ময়দান কানায় কানায় পূর্ণ, বক্তব্য দিচ্ছেন স্থানীয় নেতারা

রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের জন্য নির্ধারিত মাদ্রাসা ময়দান দলের নেতা-কর্মীদের উপস্থিতিতে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে। স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠেছে চারপাশ।
রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশে মাদ্রাসা ময়দানের চিত্র। ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের জন্য নির্ধারিত মাদ্রাসা ময়দান দলের নেতা-কর্মীদের উপস্থিতিতে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে। স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠেছে চারপাশ।

আজ শনিবার ভোর ৬টায় ঐতিহাসিক এই ময়দানের প্রবেশদ্বারগুলো খুলে দেয় পুলিশ। এর আগ পর্যন্ত বিএনপি নেতা-কর্মীদের সমাবেশস্থলে ঢুকতে দেওয়া দেয়নি। এ ছাড়া নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে আজ দুপুর ২টার আগে সমাবেশস্থলে প্রবেশ করা যাবে না- এমন কথাও বলা হয়েছিল পুলিশের পক্ষ থেকে।

নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন ও খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ বিভিন্ন দাবিতে সারাদেশে বিএনপির যে বিভাগীয় গণসমাবেশ হচ্ছে তার ধারাবাহিকতায় আজ শনিবার এই মাদ্রাসা মাঠে রাজশাহীর সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এদিন দুপুর ২টা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সমাবেশ শুরুর কথা থাকলেও সকাল সাড়ে ৮টাতেই সমাবেশের কার্যক্রম শুরু হয়ে যায়।

এ সময় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু মাঠে প্রবেশ করেন এবং লাউডস্পিকারে বলতে থাকেন, 'কেন্দ্রীয় নেতারা শিগগির মঞ্চে আসবেন।'

বিএনপির আজকের সমাবেশের আগে বৃহস্পতিবার থেকে পরিবহন ধর্মঘট শুরু হওয়ার কারণে দলের নেতা-কর্মীরা আশপাশের জেলা-উপজেলা থেকে বুধবার রাত থেকেই রাজশাহীতে আসতে শুরু করেন। তারা সমাবেশস্থলের অদূরে শাহ মখদুম ঈদগাহ মাঠে অবস্থান নেন।

সাড়ে ৮টায় সমাবেশের কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর সমাবেশস্থলে বিএনপি নেতা-কর্মীদের একের পর এক মিছিল আসতে থাকে।

দুপুর ২টায় সমাবেশের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হওয়ার আগে এই মুহূর্তে সেখানে তৃণমূল ও স্থানীয় নেতা-কর্মীরা বক্তব্য দিচ্ছেন।

আজকের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেবেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ২টার পর তিনি মঞ্চে উঠবেন বলে জানান স্থানীয় বিএনপি নেতারা।

Comments