রাজনীতি

দেশ সংকটে নেই, বিএনপি সংকটে আছে: হানিফ

দেশ সংকটে নেই, বিএনপি সংকটে আছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।
মাহবুবউল আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ | ছবি: সংগৃহীত

দেশ সংকটে নেই, বিএনপি সংকটে আছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

আজ শুক্রবার সকালে কুষ্টিয়ায় শেখ কামাল দ্বিতীয় বাংলাদেশ যুব গেমসের উদ্বোধনকালে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

আদালতকে সরকার ব্যবহার করছে এ ধরনের অভিযোগ বিএনপির মুখে মানায় না মন্তব্য করে হানিফ বলেন, 'বিএনপি এ দেশের বিচার ব্যবস্থাকে কলুষিত করেছিল। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বিচার বন্ধ করে বিএনপি প্রমাণ করেছিল যে, তারা আইন-আদালত-বিচার ব্যবস্থা বিশ্বাসী নয়। এরপরও বিএনপি যখন রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিল তখন বারবার তারা আদালতকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেছে। বর্তমান সরকার কখনো বিচার ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করে না।'

তিনি বলেন, 'বিএনপির পক্ষে রায় গেলে তারা সেটাকে যৌক্তিক মনে করে। যৌক্তিকভাবে যদি তাদের বিপক্ষে রায় যায় সেটাকে তারা নামে মেনে প্রভাবিত বা হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ করে। তাদের ভেতরে বিচারহীনতার যে সংস্কৃতি সেখান থেকে এই মানসিকতা।'

আওয়ামী লীগ সরকার বিচার ব্যবস্থায় কখনো হস্তক্ষেপ করেনি, ভবিষ্যতেও করবে না জানিয়ে তিনি বলেন, 'আমরা বারবার বলেছি যে কোনো রাজনৈতিক দলের গণতান্ত্রিক অধিকার আছে তাদের রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করার। বিএনপি বা অন্য রাজনৈতিক দল তাদের কর্মসূচি পালন করবে এতে আওয়ামী লীগের ভাবনার কী আছে!'

বিএনপিকে জনবিচ্ছিন্ন রাজনৈতিক দল আখ্যা দিয়ে হানিফ বলেন, 'তারা রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে যে অপকর্মগুলো করেছিল, তার কারণে তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ক্ষমতার বাইরে থেকে তারা হরতাল-অবরোধের নাম করে ২০১৩-১৫ সালে গাড়ি-ঘোড়ায় আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করার মাধ্যমে জনগণের কাছে ধিক্কৃত হয়েছিল।'

এ রকম একটি গণধিক্কৃত দল, যার শীর্ষ ২ নেতা বিভিন্ন মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে একজন কারাগারে, অন্যজন বিদেশে পলাতক। সেই দলের আন্দোলন নিয়ে আওয়ামী লীগের মতো একটি দল, যার গণভিত্তি আছে তার কেন কথা বলতে হবে, প্রশ্ন রাখেন হানিফ।

তিনি বলেন, 'বিএনপির আন্দোলন নিয়ে কোনো আলোচনার দরকার নেই। বিএনপির কর্মসূচি নিয়ে বিএনপি নেতারাই ভাবুক। দেশের জনগণ বিএনপির কর্মসূচি নিয়ে ভাবছে না, আওয়ামী লীগেরও ভাবনার কিছু নেই। অতীতেও দেখা গেছে এই সরকারের অন্যান্য কর্মকাণ্ড বাধাগ্রস্ত করার জন্য অন্য অপশক্তি বিশেষ করে একাত্তর ও পঁচাত্তরের অপশক্তি বিভিন্ন সময় চেষ্টা করেছে, তাদের পরিণতি খুব একটা সুখকর হয়নি। সরকার উন্নয়ন অব্যাহত ও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সুষ্ঠু রাখার জন্য যে কোনো অপতৎপরতাকে কঠোরভাবে দমন করবে।'

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'দেশ সংকটে নেই, সংকটে আছে বিএনপি। যে দলের শীর্ষ ২ নেতা বিভিন্ন মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে পলাতক এবং কারাগারে থাকে সেই দল সংকটে থাকবে এটাই স্বাভাবিক। তাদের সংকটকে বারবার দেশের সংকট বলে প্রচার করে সান্ত্বনা খোঁজার চেষ্টা করছে। দেশ সংকটে নেই, দেশের জনগণও সংকটে নেই। বিএনপি সংকটে আছে, সংকটেই থাকবে।'

Comments