আন্তর্জাতিক নারী দিবস

আ. লীগ সরকারের আমলে সবচেয়ে বেশি নারী নির্যাতন হয়েছে: ফখরুল

আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে সবচেয়ে বেশি নারী নির্যাতন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
ফখরুল
বক্তব্য রাখছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে সবচেয়ে বেশি নারী নির্যাতন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আজ বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত র‌্যালির আগে তিনি এই কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, 'আমাদের জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি এখন নারী। এই নারীদের যদি ক্ষমতায়ন না হয়, তাহলে সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া কঠিন হবে। বাংলাদেশে এই বিষয়টি সবার আগে উপলব্ধি করেছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিষ্ঠাতা ও আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। তার সময় তিনি মহিলা ও শিশু মন্ত্রণালয় গঠন করেছিলেন।'

বিএনপি চেয়ারপারসনের ভূমিকা তুলে ধরে মহিলা দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'আপনাদের গর্ব করা উচিৎ—দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মতো একজন নেত্রী আপনাদের নেতৃত্ব দিয়েছেন, পথ দেখিয়েছেন। তিনিই প্রথম প্রধানমন্ত্রী, যিনি বাংলাদেশের নারীদের জন্য শিক্ষার ব্যবস্থা করেছিলেন, এটা অতীতে কখনো আর কেউ করেনি। তিনি নারী শিক্ষাকে অবৈতনিক ঘোষণা করেছিলেন, যেটা দক্ষিণ এশিয়াতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। বাংলাদেশের উন্নয়নের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখে।'

'দুর্ভাগ্য আমাদের, আজকে যখন নারী প্রধানমন্ত্রী; হোক জোর করে ক্ষমতা দখল করে বসে আছে, তার সময়ে নারী নির্যাতন সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের পাশে দাঁড়িয়ে আছেন মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক। তিনি একজন সাবেক এমপি। তাকে শুধুমাত্র কথা বলার অপরাধে, পোস্ট করার অপরাধে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে আড়াই মাস অমানবিক নির্যাতন করে আটক রাখা হয়। সাবেক এমপি হিসেবে ডিভিশন তার প্রাপ্য কিন্তু তাকে দেওয়া হয়নি। দীর্ঘ দিন তাকে সেখানে ওইভাবে রাখা হয়েছে,' বলেন বিএনপি মহাসচিব।

তিনি আরও বলেন, 'আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়া একজন নারী। তাকে অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে প্রথমে সাজা দেওয়া হয়েছে ৫ বছর। তারপর তার সাজা বাড়িয়ে করেছে ১০ বছর। তার প্রাপ্য জামিন থেকে বঞ্চিত করে রাখা হয়েছে। তিনি অত্যন্ত অসুস্থ কিন্তু তাকে চিকিৎসার সুযোগ পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছে না। বিদেশে চিকিৎসা নেওয়ার কথা ডাক্তাররা বলেছেন কিন্তু তাকে সেই সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না।'

'আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে নারীরা যেভাবে নির্যাতিত হয়েছেন, অতীতে কখনো এভাবে নির্যাতিত হয়েছে বলে আমাদের জানা নেই। কিছু দিন আগে রাজবাড়ীতে একজন অধিকারকর্মীকে শুধুমাত্র লেখার কারণে আটক করা হয় এবং দীর্ঘ দিন তাকে জামিন দেওয়া হয়নি,' বলেন তিনি।

মহিলা দলের নেতাদের উদ্দেশে ফখরুল বলেন, 'এই দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। নারীদের মধ্যেও তিনি সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী। তাই মহিলা দলের দায়িত্ব নারীদের আরও বেশি সংগঠিত করা।'

'দুর্ভাগ্য আমাদের, এই সরকারের ব্যর্থতার কারণে ঢাকা মহানগরী এখন একটি বিস্ফোরণ নগরীতে পরিণত হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে শুধু বিস্ফোরণ হচ্ছে। কীভাবে বিস্ফোরণ হচ্ছে, ভবন নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ দেখাশোনা হয় না। কোনো নজরদারি নেই। সায়েন্স ল্যাবে আমরা দেখলাম, গ্যাস জমে থেকে বিস্ফোরণ হয়েছে। গতকাল একটি বাণিজ্যিক ভবনে বিস্ফোরণের ফলে ১৭ জন লোক মারা গেছেন। চট্টগ্রামে অক্সিজেট প্ল্যান্ট বিস্ফোরণে মারা গেলেন। কেন হচ্ছে এগুলো? একটামাত্র কারণ, সরকারের যেসব বিভাগের এগুলো দেখার কথা তারা কোনো কাজ করে না, সব দুর্নীতিতে জড়িত। যার ফলে এই ভবনগুলোতে কোনো নিরাপত্তা নেই। ঢাকা সবচেয়ে বিপজ্জনক নগরে পরিণত হয়েছে' বলেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Hefty power bill to weigh on consumers

The government has decided to increase electricity prices by Tk 0.34 and Tk 0.70 a unit from March, which according to experts will have a domino effect on the prices of essentials ahead of Ramadan.

12h ago