নির্বাচনের ভোট চুরি এখনই চলছে, ইইউ প্রতিনিধি দলকে জানিয়েছে বিএনপি

পর্যবেক্ষক পাঠাবে কি পাঠাবে না সেটা তাদের সিদ্ধান্ত। কথা হচ্ছে, বাংলাদেশে নির্বাচন তো হতে হবে! পর্যবেক্ষকের প্রশ্ন তখনই আসে যখন একটা নির্বাচন হয়।
আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী
আজ শনিবার সকালে গুলশানে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এখনই ভোট চুরির প্রক্রিয়া চলছে বলে ঢাকায় সফররত ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নির্বাচন পর্যবেক্ষক প্রতিনিধি দলকে জানিয়েছে বিএনপি।

আজ শনিবার সকালে গুলশানে বৈঠক শেষে বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী গণামাধ্যমকর্মীদের এ কথা জানান।

আমীর খসরু বলেন, 'নির্বাচনকে নিয়ে বাংলাদেশের প্রতি সারা বিশ্বের নজর কেন? এটা হচ্ছে প্রশ্ন। কেন ইইউ টিম এসে বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে তাদের মতামত দিতে হচ্ছে। দক্ষিণ এশিয়ায় কোনো দেশে তো তাদের যেতে হচ্ছে না!'

'স্বাভাবিকভাবে বর্তমান সরকারের অধীনে যে কোনো নির্বাচন যে প্রশ্নবিদ্ধ, গ্রহণযোগ্য না; এটাই ভিত্তি। এই ভিত্তির ওপর সারা বিশ্ব আজকে বাংলাদেশের ওপর নজর দিয়েছে। বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করছে। এত বেশি প্রশ্নবিদ্ধ যে, তারা জানতে চাচ্ছেন, বাংলাদেশের নির্বাচনটা আদৌ আগামী দিনের জনগণের ভোটের মাধ্যমে সম্ভব হবে কি না,' বলেন তিনি।

আমীর খসরু বলেন, 'আমাদের পক্ষ থেকে যেটা আমরা সব সময় বলে এসেছি, আমরা শুধু বলছি না; বাংলাদেশের জনগণ, বিশ্ব বিবেক যেটা বলছে—এই রেজিমের অধীনের নির্বাচনে যাওয়ার কোনো প্রশ্নই ওঠে না! সম্ভব না। এর কারণ বিশাল, সব এখানে বলা সম্ভব না। যে কারণে তারা (ইইউ প্রতিনিধি দল) এসেছে তার কারণ হচ্ছে এদের অধীনের নির্বাচন হবে না।'

তিনি বলেন, 'এরা নির্বাচনের দিন তো দূরে থাকুক, নির্বাচনের ভোট চুরি তো এখনই চলছে! এই যে ডিসিদের পোস্টিং হচ্ছে, পুলিশের পোস্টিং হচ্ছে, টিএনওদের পোস্টিং হচ্ছে, বিএনপি নেতাদের গ্রেপ্তার চলছে। বিএনপির জনসভায় আসতে বাধা দেওয়া হচ্ছে, কালকে পদযাত্রায় আক্রমণ করে আহত করেছে। এটা তো অব্যাহতভাবে চলছে। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিচারকে তরান্বিত করে তাড়াতাড়ি শাস্তি দিয়ে...তারা যাতে নির্বাচন করতে না পারে—এসব কাজগুলো এখানো চলছে।'

'অর্থাৎ ভোট চুরি প্রত্যেক দিন চলছে বাংলাদেশে। ভোটের দিন নয়, এখনই ভোট চুরি চলছে, আগেও চলেছে এবং আগামীতেও তাদের প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তারা নির্বাচনকে নিয়ন্ত্রণ করে আবার জোর করে ক্ষমতায় যাবে জনগণকে বাইরে রেখে। এই বিষয়গুলো পরিষ্কার। স্বাভাবিকভাবে এগুলো তো আলোচনায় আসবে। এগুলো আলোচনা হয়েছে, আমরা বলেছি। শেষ কথা হচ্ছে, এই রেজিমের অধীনে কোনো নির্বাচনে বাংলাদেশের মানুষ তাদের ভোট প্রয়োগ করতে পারবে না, তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করতে পারবে না, তাদের সংসদ নির্বাচন করতে পারবে না, তাদের সরকার নির্বাচন করতে পারবে না,' বলেন এই বিএনপি নেতা।

তিনি আরও বলেন, 'এগুলো আসলে সবারই জানা আছে কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপটে যেহেতু আলোচনায় আসছে, আমাদের বারবার বলতে হচ্ছে কথাগুলো।'

এক প্রশ্নের জবাবে আমীর খসরু বলেন, 'পর্যবেক্ষক পাঠাবে কি পাঠাবে না সেটা তাদের সিদ্ধান্ত। কথা হচ্ছে, বাংলাদেশে নির্বাচন তো হতে হবে! পর্যবেক্ষকের প্রশ্ন তখনই আসে যখন একটা নির্বাচন হয়। এই মুহূর্ত পর্যন্ত বাংলাদেশের জনগণ, বিশ্বের জনগণ, গণতান্ত্রিক বিশ্বের কথা বলছি; কেউ বিশ্বাস করে না বিগত নির্বাচনগুলোতে জনগণ ভোট দিয়ে আজকে সরকার গঠন করেছে। আগামীতে করার কোনো কারণ নেই। এই প্রেক্ষাপটে তারা যে সিদ্ধান্ত দেবে সেটা তাদের ব্যাপার। তারা এখানে আসার উদ্দেশ্য পরিষ্কার করছে যে, বাংলাদেশে কোনো নির্বাচন হয় না। নির্বাচন হলে...তারা তো নেপাল, ভুটান, পাকিস্তান, ইন্ডিয়া, শ্রীলঙ্কা কোথাও যাচ্ছে না!'
 

Comments

The Daily Star  | English

Student politics, Buet and ‘Smart Bangladesh’

General students of Buet have been vehemently opposing the reintroduction of student politics on their campus, the reasons for which are powerful, painful, and obvious.

1h ago