রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের সতর্ক অবস্থান

রাজধানীর প্রবেশ পথগুলোতে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ঘিরে বিভিন্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
সকাল সাড়ে ১০টায় গাবতলীতে আওয়ামী লীগের অবস্থান। ছবি: প্রবীর দাশ/স্টার

রাজধানীর প্রবেশ পথগুলোতে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ঘিরে বিভিন্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে সরেজমিনে আমিনবাজার, গাবতলী, টঙ্গি, আব্দুল্লাহপুর, ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়েসহ বিভিন্ন পয়েন্টে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি দেখা গেছে। সড়কের মোড়ে পুলিশের চেকপোস্ট বসেছে, তল্লাশি চলছে। 

সড়কে সর্তক অবস্থানে আছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এসব এলাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের জড়ো হতে দেখা গেলেও বিএনপি নেতাকর্মীদের অবস্থান নিতে দেখা যায়নি।

আমিনবাজার ও গাবতলী থেকে দ্য ডেইলি স্টারের প্রতিবেদক জানান, সকাল থেকেই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সেখানে অবস্থান নিয়েছেন। আবদুল্লাহপুরে মূল সড়কে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মিছিল দেখা গেছে, সেসময় গলির ভেতরে অবস্থান করছিলেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

ঘটনাস্থল থেকে দ্য ডেইলি স্টারের প্রতিবেদক জানান, সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আবদুল্লাহপুরে বিএনপি লোকজন অবস্থান নিতে গেলে তাদেরকে প্রতিহত করে আওয়ামী লীগ, পরে পুলিশের বাধায় তারা সেখান থেকে সরে যায়।

গাবতলীতে বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি থেকে চেয়ার-মাইক নিয়ে যাওয়াসহ দলটির কয়েকজন কর্মীকে আটক করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে।

ঘটনাস্থল থেকে দ্য ডেইলি স্টারের আলোকচিত্রী জানান, অবস্থান কর্মসূচির জন্য বিএনপির নেতাকর্মীরা গাবতলীতে জড়ো হতে শুরু করে। এরপর পুলিশ সেখানে গিয়ে তাদের চেয়ার-মাইক তুলে নিয়ে যায় এবং অনেকের মোবাইল ফোন চেক করে। পরে সেখান থেকে বিএনপির কয়েকজন কর্মীকে আটক করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দারুসসালাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল বাশার ডেইলি স্টারকে বলেন, 'বিচ্ছিন্ন ঘটনায় আমরা বেশ কয়েকজনকে আটক করেছি। তবে কতজনকে আটক করেছি, তা এখনই জানাতে পারছি না।'

শনিবার সকালে সাভার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিপক চন্দ্র সাহা দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'বিএনপি ও যুবলীগের অবস্থান কর্মসূচি থাকায় কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।'

'আমরা সব বিষয়ে নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সার্বক্ষণিক তৎপর রয়েছি। যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আমাদের পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত রয়েছে,' বলেন তিনি।

আবদুল্লাহপুর থেকে দ্য ডেইলি স্টারের প্রতিবেদক জানান, মূল সড়কে সকাল ১০টা থেকেই অবস্থান ও মিছিল করছিলেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। গলির ভেতরে ছিলেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

দুপুর সোয়া ১১টায় বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে মূল সড়কে এসে রাস্তা অবরোধের প্রস্তুতি নিতে গেলে ৫ মিনিটের মধ্যেই আওয়ামী লীগের লোকজন ও পুলিশ তাদের বাধা দেয়। পাল্টা ইট-পাটকেল ছোড়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা। ২০ মিনিটের মতো এ সংঘর্ষ চলে।

পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ কয়েকজনকে আটক করে নিয়েছে। তবে কতজন আটক এ ব্যাপারে পুলিশ কথা বলতে রাজি হয়নি।

আজ শনিবার রাজধানী ঢাকার সব গুরুত্বপূর্ণ প্রবেশমুখে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি, 'শান্তি সমাবেশে'র ঘোষণা দিয়েছে যুবলীগও।

Comments

The Daily Star  | English

BCL men 'beat up' students at halls

At least six residential students of Dhaka University's Sir AF Rahman were beaten up allegedly by a group of Chhatra League activists of the hall unit for "taking part" in the anti-quota protest tonight and posting their photos on social media

49m ago