পুলিশের লাঠিচার্জে কাঁচপুরে বিএনপির পদযাত্রা পণ্ড

নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুর এলাকায় জেলা বিএনপির পদযাত্রায় পুলিশ লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট ছুড়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
নারায়ণগঞ্জে বিএনপির পদযাত্রায় পুলিশের লাঠিচার্জ। ছবি: ভিডিও থেকে নেওয়া

নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুর এলাকায় জেলা বিএনপির পদযাত্রায় পুলিশ লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট ছুড়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এসময় বিএনপির ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা পুলিশের ওপর পাল্টা ইট-পাটকেল ছোড়েন বলে জানা গেছে।

আজ শনিবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর সেতুর ঢালে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, বিনা অনুমতিতে মহাসড়ক অবরোধ করে কর্মসূচি পালন করছিল বিএনপি। মহাসড়ক ছেড়ে দিতে বললে তারা পুলিশের ওপর চড়াও হন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও বিএনপি নেতাকর্মীরা জানান, কেন্দ্রীয় পদযাত্রা কর্মসূচির অংশ হিসেবে কাঁচপুর সেতুর পূর্ব পাশের ঢালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে জড়ো হতে শুরু করেন জেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এসময় পুলিশ মহাসড়ক থেকে সরে যেতে বললে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে তর্ক বাধে। একপর্যায়ে পুলিশ লাঠিচার্জ করলে বিএনপি নেতাকর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যান। পরে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়লে বিএনপি কর্মীরা ইট-পাটকেল মারতে থাকেন।

বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশের কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ। ছবি: স্টার

বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, তারা শান্তিপূর্ণভাবে পদযাত্রার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এসময় সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) নেতৃত্বে পুলিশ তাদের বাধা দেয় এবং লাঠিচার্জ শুরু করে। পরে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক খোকন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'কাঁচপুর সেতুর ঢাল থেকে চিটাগাং রোড পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পদযাত্রা করার পরিকল্পনা ছিল তাদের।'

পুলিশ বলছে, বিনা অনুমতিতে মহাসড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করছিলেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে এবং বিশৃঙ্খলা এড়াতে তাদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

জেলা পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার চাইলাউ মারমা ডেইলি স্টারকে বলেন, 'পদযাত্রা করার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো অনুমতি ছিল না। বিএনপি নেতাকর্মীরা মহাসড়ক অবরোধ করে যান চলাচলে বিঘ্ন তৈরি করছিলেন। পুলিশ তাদের মহাসড়ক ছেড়ে দেওয়ার কথা বললে উল্টো চড়াও হয়। পরে পুলিশ পরিস্থিতি মোকাবিলায় অ্যাকশনে যায়।'

'পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল ছোড়া হলে পুলিশ টিয়ারগ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে আছে। পরবর্তী বিশৃঙ্খলা এড়াতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে', যোগ করেন এ পুলিশ কর্মকর্তা।

Comments