আমাদের নিশ্চিহ্ন করার লড়াই থেকে বিএনপি এখনো বিরত হয়নি: কাদের

জিয়া পরিবারের কাকে আওয়ামী লীগ নিশ্চিহ্ন করেছে প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের কেউ আমরা হত্যার রাজনীতি করি না।
আমাদের নিশ্চিহ্ন করার লড়াই থেকে বিএনপি এখনো বিরত হয়নি: কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

বিএনপি আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করার লড়াই থেকে এখনো বিরত হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ১৯তম বার্ষিকী স্মরণে আজ সোমবার সকালে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠান তিনি এ কথা বলেন।

জিয়া পরিবারের কাকে আওয়ামী লীগ নিশ্চিহ্ন করেছে প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'আওয়ামী লীগের কেউ আমরা হত্যার রাজনীতি করি না। ষড়যন্ত্রের রাজনীতি আমরা কখনো করি না। নিজেরা ষড়যন্ত্রের শিকার হই। আমরা কাউকে হত্যার ষড়যন্ত্র করি এমন প্রমাণ বাংলাদেশের ইতিহাসে কেউ দেখাতে পারবে না।'

বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, 'আজকে বাংলাদেশে বিদেশিদের তারা বলে, আওয়ামী লীগ জিয়া পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করতে চায়। কীভাবে? খালেদা জিয়া এতিমের অর্থ আত্মসাতের অপরাধে জেলে গেছে। দিনের পর দিন, মাসের পর মাস মামলায় হাজিরা দেয়নি। বিলম্বিত বিচার তারাই করেছে। খালেদা জিয়ার জেল হয়েছে। আজকে তিনি জেলের বাইরে আছেন। মির্জা ফখরুলকে বলি, আপনাদের আন্দোলনের ফসল না শেখ হাসিনার উদারতা? শেখ হাসিনার উদারতা, আপনাদের কোনো আন্দোলন...৫০০ লোকের একটা মিছিল খালেদা জিয়ার জন্য আমরা দেখিনি। কে তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে!'

'তারপর হাওয়া ভবন থেকে ২১ আগস্টে অপরারেশন শুরু করার নির্দেশ দিয়েছিল হাওয়া ভবনের তৎকালীন যুবরাজ ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা, আজকে অর্থপাচারের অপরাধে দণ্ডিত বেগম জিয়া-জিয়াউর রহমানের সন্তান তারেক রহমান। কাপুরুষের মতো বিদেশে পলাতক অবস্থায় আছে,' বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'এই কথাটা আমাদের মনে রাখতে হবে যে, বাংলাদেশে একটি দল বিএনপি, তার দোসররা আমাদের অস্তিত্বের বিরুদ্ধে, আমাদের নিশ্চিহ্ন করতে তাদের লড়াই থেকে তারা এখনো বিরত হয়নি।'

নেতাকর্মীদের এ কথা মনে রাখার আহ্বান জানান কাদের।

তিনি আরও বলেন, 'বাংলাদেশের পতাকাকে উড্ডীন রাখতে, মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে সমুন্নত রাখতে বিএনপিসহ তার দোসর, অপশক্তি বাংলার মাটিতে এদেরকে আমাদের রুখতে হবে। এদেরকে প্রতিরোধ করতে হবে, প্রতিহত করতে হবে। এদেরকে পরাজিত করতে হবে রাজনৈতিক আন্দোলনে। এদের পরাজিত করতে হবে নির্বাচনী লড়াইয়ে।'

'এই অপশক্তি, এই খুনী, এই দুর্নীতিবাদ, এই অর্থপাচারকারী, ভোট চোর অপরাধী চক্র স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে এদের কোনো অধিকার নেই রাজনীতি করার। এই দেশ তারা চায় না। তাদের দেশ পাকিস্তান। তাদের দেশ আফগানিস্তান। বাংলাদেশ তাদের হৃদয়ে নেই, হৃদয়ে পাকিস্তান। বাংলাদেশ যদি তাদের হৃদয়ে থাকতো, আজকে এত সব ঘটনা তারা ঘটাতে পারতো না।

বিএনপি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'এই সন্ত্রাসীদের হাতে বাংলাদেশ নিরাপদ নয়। মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ নিরাপদ নয়। এই সন্ত্রাসীদের হাতে আমাদের নির্বাচন নিরাপদ নয়। গণতন্ত্র নিরাপদ নয়।'

Comments

The Daily Star  | English

Teachers' pension scheme 'Prottoy' effective from July 2025: Quader

The universal pension scheme "Prottoy" will be effective from July 1 next year, not from the current month, said Awami League General Secretary Obaidul Quader

1h ago