আজ ক্ষমা দিবস, কাকে ক্ষমা করবেন

আজ এমন একটি দিন, যে দিনটি হতে পারে অতীতকে ভুলে যাওয়ার, যে দিনটি হতে পারে ক্ষমার দিন। আজ ৮ সেপ্টেম্বর ক্ষমা দিবস।
বিচিত্র, বিচিত্র দিবস, ক্ষমা দিবস,
ছবি: সংগৃহীত

ছোট্ট একটি ভুলের কারণে আমাদের সম্পর্কগুলো তিক্ত হয়ে ওঠে। তৈরি হয় বিদ্বেষ, ভেঙে যায় আনুগত্য। তাই ছোট্ট কোনো ভুলের জন্য কারো ওপর রাগ করে থাকা উচিত হয়। বরং তাকে ক্ষমা করে দিন। কারণ, ক্ষমা মহৎ গুণ, ক্ষমা সুন্দর- এ কথা মনীষীরা বলে গেছেন।

আজ এমন একটি দিন, যে দিনটি হতে পারে অতীতকে ভুলে যাওয়ার, যে দিনটি হতে পারে ক্ষমার দিন। আজ ৮ সেপ্টেম্বর ক্ষমা দিবস। যুক্তরাষ্ট্র দিবসটি উদযাপন করে থাকে। যেহেতু ক্ষমা মহৎ গুণ তাই চাইলে আমরাও দিবসটি পালন করতে পারি। আর একবার ক্ষমা করে দিলে তা হতে পারে দীর্ঘস্থায়ী শান্তি ও সুখের চাবিকাঠি।

ক্ষমা সম্ভবত একজন মানুষের সবচেয়ে ইতিবাচক গুণ। আর এই গুণটি অর্জন করা কোনো কষ্টসাধ্য ব্যাপার নয়, শুধু দরকার একটুখানি স্বদিচ্ছা। পৃথিবীর সব ধর্মের অন্যতম প্রধান শিক্ষা এই ক্ষমা। সব ধর্মেই বলা হয়েছে মানুষকে ক্ষমা করার কথা।

'ক্ষমা' শব্দটির কিছু আইনি ব্যাখ্যাও আছে। যেমন কোনো দেশের উচ্চ আদালত অপরাধীকে ক্ষমা করার মানে হলো তাকে অপরাধের শাস্তি থেকে মুক্তি দেওয়া। আর এখান থেকেই মূলত ক্ষমা দিবসের উৎপত্তি। ১৯৭৪ সালের ৮ সেপ্টেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট জেরাল্ড ফোর্ড আরেক প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সনকে ক্ষমা করে দিয়েছিলেন। যেই ক্ষমাকে অত্যন্ত বিতর্কিত হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল। কারণ নিক্সন মার্কিন ইতিহাসের কলঙ্কজনক ঘটনা ওয়াটারগেটের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

সেখানে ক্ষমা দিবসের উৎপত্তি। তবে, যেভাবেই দিবসটির উৎপত্তি হোক না কেন, ক্ষমা সবসময়ই সুন্দর।

Comments

The Daily Star  | English
Public universities protests quota reformation

PM's comment ignites protests across campuses

Hundreds of students from several public universities, including Dhaka University, took to the streets around midnight to protest what they said was a "disparaging comment" by Prime Minister Sheikh Hasina earlier in the evening

9h ago