ন্যাটো সদস্যপদের আবেদন করলেন জেলেনস্কি

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি শুক্রবার ন্যাটো সামরিক জোটের সদস্যপদের জন্য আবেদন করেছেন। একইসঙ্গে তিনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে দেন। তিনি মস্কোকে পাল্টা আক্রমণ করে বলেন, তারা চারটি ইউক্রেনীয় অঞ্চল দখল করেছে।
ন্যাটো সামরিক জোটে সদস্যপদ পাওয়ার আবেদনপত্র হাতে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি, প্রধানমন্ত্রী ডেনিস শ্যামিহাল এবং পার্লামেন্টের স্পিকার রুসলান স্টেফানচুক। কিয়েভ, ইউক্রেন। ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২। ছবি: রয়টার্স

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি শুক্রবার ন্যাটো সামরিক জোটের সদস্যপদের জন্য আবেদন করেছেন। একইসঙ্গে তিনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে দেন। তিনি মস্কোকে পাল্টা আক্রমণ করে বলেন, তারা চারটি ইউক্রেনীয় অঞ্চল দখল করেছে।

আজ শুক্রবার রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

রয়টার্স বলছে, জেলেনস্কি একটি অনলাইন ভিডিওতে ন্যাটোর আবেদনপত্রে স্বাক্ষর করেছেন। এটি স্পষ্টতই ক্রেমলিনকে প্রত্যাখ্যান করতেই করা হয়েছে। পুতিন মস্কোতে ইউক্রেনের ৪টি অংঞ্চলকে নিজেদের ভূখণ্ড ঘোষণার পর এ ঘটনা ঘটল।

টেলিগ্রামে এক ভিডিওতে জেলেনস্কি বলেন, দ্রুত ন্যাটোত প্রবেশের জন্য ইউক্রেন আবেদনে স্বাক্ষর করেছে এবং এটা আমাদের সিদ্ধান্তমূলক উদ্যোগ।

ভিডিওতে দেখা যায়, জেলেনস্কি যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সদস্যপদ গ্রহণের ঘোষণা দিচ্ছেন এবং দেশটির প্রধানমন্ত্রী ও পার্লামেন্টের স্পিকারের পাশে থাকা একটি দলিলে স্বাক্ষর করছেন।

ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া ইউক্রেনে তার সশস্ত্র বাহিনী পাঠানোর আগে, মস্কো আইনত নিশ্চয়তা চেয়েছিল- ইউক্রেনকে কখনই মার্কিন নেতৃত্বাধীন ট্রান্সআটলান্টিক প্রতিরক্ষা জোটের সদস্য করা হবে না।

কিয়েভ এবং পশ্চিমারা বলছে, মস্কো ইউক্রেনের বিরুদ্ধে পূর্ব-পরিকল্পিত সামরিক অভিযান চালাতে এটিকে অজুহাত হিসেবে ব্যবহার করেছে।

ভিডিও বক্তৃতায় রাশিয়াকে ইতিহাস পুনর্লিখন এবং 'হত্যা, ব্ল্যাকমেল, দুর্ব্যবহার ও মিথ্যা ব্যবহার করে' সীমানা পুনর্বিন্যাস করার জন্য অভিযুক্ত করেন জেলেনস্কি। তবে, কিয়েভ এটি মেনে নেবে না বলে জানান তিনি।

 

Comments

The Daily Star  | English

Nation celebrating Eid-ul-Azha amid festive spirit

Bangladesh has begun celebrating Eid-ul-Azha, the second-largest religious festival for Muslims, with fervor and devotion

1h ago