যুক্তরাষ্ট্র

চীনা গুপ্তচর বেলুনের ধ্বংসাবশেষ খুঁজছে যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন আকাশসীমায় প্রায় ৭ দিন থাকার পর শনিবার সন্দেহভাজন চীনা গুপ্তচর বেলুনটিকে আটলান্টিক মহাসাগরের ওপর সুপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ভূপাতিত করে একটি এফ-২২ জঙ্গি বিমান।
দর্শনার্থীরা বেলুন ভূপাতিত হতে দেখছেন। ছবি: রয়টার্স
দর্শনার্থীরা বেলুন ভূপাতিত হতে দেখছেন। ছবি: রয়টার্স

মার্কিন আকাশসীমায় প্রায় ৭ দিন থাকার পর শনিবার সন্দেহভাজন চীনা গুপ্তচর বেলুনটিকে আটলান্টিক মহাসাগরের ওপর সুপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ভূপাতিত করে একটি এফ-২২ জঙ্গি বিমান।

মার্কিন সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, তারা সাগর থেকে সন্দেহভাজন চীনা গুপ্তচর বেলুনের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধারের অভিযান চালাচ্ছে।

আজ সোমবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, বেইজিংয়ের স্বার্থ হানি হতে পারে বিধায় এ বিষয়টি নিয়ে আর কোনো ব্যবস্থা না নিতে তারা ওয়াশিংটনকে অনুরোধ করেছে।  

বেইজিং আবারও দাবি করেছে, এটি একটি বেসামরিক আকাশযান ছিল, যেটি ভুলক্রমে মার্কিন আকাশসীমায় ঢুকে পড়ে। তা সত্ত্বেও এ ঘটনায় ২ দেশের মধ্যে সম্পর্কের আরও অবনতি হয়েছে, যার ফলে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনের পরিকল্পিত বেইজিং সফর বাতিল হয়েছে।

ইতোমধ্যে মার্কিন নৌবাহিনী বেলুনটি ও এর মধ্যে থাকা সকল উপকরণ উদ্ধারের জন্য কাজ করছে। দেশটির কোস্ট গার্ড এই অভিযানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করছে বলে জানিয়েছেন নর্থ আমেরিকান অ্যারোস্পেস ডিফেন্স কমান্ড ও ইউএস নর্দার্ন কমান্ডের কমান্ডার জেনারেল গ্লেন ভ্যানহার্ক। তিনি রোববার এই তথ্য দেন।

এই অভিযান সফল হলে যুক্তরাষ্ট্র চীনের নজরদারি সক্ষমতা সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে পারে। তবে এ পর্যন্ত মার্কিন কর্মকর্তারা এই বেলুনকে জাতীয় নিরাপত্তার প্রতি বড় কোনো হুমকি হিসেবে বিবেচনা করছেন না।

বেলুনে ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানার পরের মুহূর্তের ছবি। ছবি: রয়টার্স
বেলুনে ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানার পরের মুহূর্তের ছবি। ছবি: রয়টার্স

এই ঘটনা এমন সময় ঘটলো, যখন যুক্তরাষ্ট্র ও চীন নতুন করে নিজেদের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে সম্পর্কের উন্নয়নের উদ্যোগ নিচ্ছিল। বেশ কয়েক বছর ধরে ২ দেশের সম্পর্কের চরম অবনতি হয়েছে এবং এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র চীনকে অত্যাধুনিক মার্কিন প্রযুক্তির সদ্ব্যবহার করা থেকে বিরত রেখেছে।

আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান ব্রোকারেজ আইএনজি আজ সোমবার মত প্রকাশ করেছে, এই ঘটনায় ২ দেশের মধ্যে চলমান 'প্রযুক্তির যুদ্ধ'কে আরও তীব্র করবে এবং এতে চীনের মুদ্রা ইউয়ানের ওপর স্বল্প মেয়াদী নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।

প্রতিষ্ঠানটি জানায়, 'উভয় পক্ষ খুব সম্ভবত বিভিন্ন শিল্প খাতের ওপর প্রযুক্তি রপ্তানি সংক্রান্ত বিধিনিষেধ আরোপ করবে। এটি সরবরাহ শৃঙ্খলের ওপর নতুন করে চাপ সৃষ্টি করবে।'

বেলুনে জঙ্গি বিমান আঘাত হানার আগের মুহূর্ত। ছবি: রয়টার্স
বেলুনে জঙ্গি বিমান আঘাত হানার আগের মুহূর্ত। ছবি: রয়টার্স

'এটি খুব সম্ভবত দীর্ঘ মেয়াদী ঝুঁকি', যোগ করে আইএনজি।

সোমবার সকালে ডলারের বিপরীতে ইউয়ানের মূল্য কমে ৬ দশমিক ৮০৭৭ হয়েছে, যা গত ১ মাসের মাঝে সর্বনিম্ন।

 

Comments