এভাবে টেস্ট খেলার কোন মানে দেখছেন না মাহমুদউল্লাহ

সর্বশেষ আট টেস্ট ইনিংসে একবারও দুশো করতে পারেনি বাংলাদেশ। হেরেছে তো বটেই, একটিতেও কোন লড়াই নেই, নেই বিন্দুমাত্র নিবেদন। বারবার একই ভুলের চক্রে ব্যাটিংয়ের রুগ্নতা কাটাতে পারেনি দল। এরকমভাবে টেস্ট খেলার কোন মানে খুঁজে পাচ্ছেন না খোদ ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।
Mahmudullah
আউট হয়ে মাথা নিচু করে ফিরছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

সর্বশেষ আট টেস্ট ইনিংসে একবারও দুশো করতে পারেনি বাংলাদেশ। হেরেছে তো বটেই, একটিতেও কোন লড়াই নেই, নেই বিন্দুমাত্র নিবেদন। বারবার একই ভুলের চক্রে ব্যাটিংয়ের রুগ্নতা কাটাতে পারেনি দল। এরকমভাবে টেস্ট খেলার কোন মানে খুঁজে পাচ্ছেন না খোদ ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ঘরের বাইরে টেস্ট ক্রিকেটে ভুগতে থাকা বাংলাদেশ ঘরের মাঠে বেশ শক্ত দলই হয়ে উঠেছিল। ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে দিয়েছিল তেমনই আভাস। তবে বছরখানেক ধরে আবার উলটোরথে যাত্রা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজে গিয়ে নাজেহাল হওয়ার তবু একটা জবাব ছিল। বিরুদ্ধ কন্ডিশন, পেস-বাউন্স সামলানোর অনভ্যাস না হয় মানা গিয়েছিল। তার আগে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অতি টার্নিং উইকেট বানিয়ে বিপর্যয়ও দেখা গিয়েছিল একটা ‘দুর্ঘটনা’ হিসেবেই।

তবে এবার জিম্বাবুয়ে যেন আকস্মিক ঝড় নাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশকে। যারা গত ১৭ বছর বাংলাদেশের মাটিতে টেস্ট জিততে পারেনি। তারা এবার মাহমুদউল্লাহদের গুঁড়িয়ে দিয়েছে সাড়ে তিনদিনে, হারিয়েছে ১৫১ রানের বিশাল ব্যবধানে।

এই হারের পর সাকিব আল হাসানের জায়গায় অধিনায়কত্ব করা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ টেস্ট ক্রিকেটের নিজেদের অবস্থানই নড়বড়ে দেখছেন, ‘অবশ্যই এটা চিন্তার বিষয়। আমাদের এটা খুব ভালোভাবে চিন্তা করতে হবে। কারণ এভাবে ব্যাট করতে থাকলে মনে হয় না আমরা টেস্ট ক্রিকেটে কোন অবস্থানে থাকব। এটা আমাদের ভাবমূর্তির ব্যাপার।  আমাদের অবশ্যই শক্তভাবে ফিরে আসতে হবে। আর না হলে এভাবে টেস্ট খেলার কোন মানে নেই।’

সামনে বিশ্বকাপ। বাংলাদেশের সব ভাবনাও ঘুরপাক খেতে পারে বিশ্বকাপ মাথায় রেখে। তবে কি টেস্টে ক্রিকেট এই সময়ে গুরুত্বহীন হওয়াতেই এমন অবস্থা? এই কথায় আবার দ্বিমত মাহমুদউল্লাহর, ‘আমরা টেস্ট ক্রিকেট গুরুত্ব দিচ্ছি। আমরা হয়তো পাঁচ ছয়টা (আসলে আট ইনিংস) ইনিংসে হয়তো রান করতে পারিনি। বোলাররা যথেষ্ট ভাল বোলিং করেছে। প্রতিপক্ষকে অল্প রানে আটকে ফেলছে। ব্যাটসম্যানরা ভাল করছে না। ওয়ানডে সংস্করণে ভাল ছন্দে আছে। কিন্তু ওই ডিসিপ্লিনটা হয়তো আমরা টেস্ট ক্রিকেটে নিতে পারছি না।’

১১০, ১২৩, ৪৩, ১৪৪, ১৪৯, ১৬৮, ১৪৩, ১৬৮ । এই হলো গত আট টেস্ট ইনিংসে বাংলাদেশের রান। কোচ জানেন না এর কারণ। আজ অধিনায়কও বললেন তার কাছেও ব্যাখ্যাটা অজানা। এই চোরাবালি থেকে বের হয়ে আসার উপায়ই বরং খুঁজছেন তারা,  ‘এমন ব্যাটিংয়ের ব্যাখ্যা দেয়া আসলে খুবই কঠিন। একটা জিনিস বলতে পারি, টেস্ট ক্রিকেট খেলতে যে ধরনের শৃঙ্খলা থাকা উচিত, আমার মনে হয় না আমরা সেটা দেখাতে পেরেছি। কারণ উইকেট বেশ ভাল ছিল, এমনকি আজও উইকেট ভাল ছিল। হয়তো দুই একটি বল টার্ন করেছে। এছাড়া আমার কাছে ভালোই মনে হয়েছে। ’

‘ডিসিপ্লিনের ইস্যুটা আমাদের আরেকটু ভাল করে দেখতে হবে। নিজেদের উপর বিশ্বাসটা আরেকটু বাড়াতে হবে। এই ইস্যু গুলো নিয়ে আমাদের কাজ করতে হবে। কারণ বেশ কয়েকটি টেস্ট আমাদের ব্যাটিং খুব বাজে হচ্ছে। আমাদের এইসব নিয়ে ভাবতে হবে, একটা উপায় বের করতে হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka traffic still light as offices, banks, courts reopen

After five days of Eid and Pahela Baishakh vacation, offices, courts, banks, and stock markets opened today

2h ago