আ. লীগের তুলনায় আড়াই গুণ মনোনয়ন জমা পড়েছে বিএনপির

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের তুলনায় বিএনপির আড়াইগুণ বেশি প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।
ec logo

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের তুলনায় বিএনপির আড়াইগুণ বেশি প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

গতকাল বুধবার ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। এর একদিন পর আজ নির্বাচন কমিশন থেকে প্রাপ্ত হিসাব বলছে, আওয়ামী লীগ থেকে ২৬৪টি আসনে মোট ২৮১ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। অন্যদিকে বিএনপির মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬৯৬ জন। ৩০০ আসনের মধ্যে ২৯৫টি আসনেই বিএনপির মনোনয়ন জমা দেওয়া হয়েছে।

আসন ভাগাভাগি নিয়ে সরকার পক্ষ ও বিরোধীদের জোটে নিজেদের ভেতর চূড়ান্ত সমঝোতা না হলেও আওয়ামী লীগ যে অন্তত ৩৬টি আসন শরিকদের ছেড়ে দিচ্ছে সেটি এখন নিশ্চিত।

অন্যদিকে, যাচাই-বাছাইয়ের সময় কারও মনোনয়নপত্র বাতিল হলেও ওই আসন যেন খালি না থাকে তার কৌশল নিয়েছে বিএনপি। দলটির নেতারা বলেছেন, সে কারণেই অনেক আসন থেকে একাধিক নেতাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বাইরে একক দল হিসেবে সবচেয়ে বেশি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে জাতীয় পার্টি থেকে। দলটির ২৩৩ জন মনোনয়ন দাখিল করেছেন। এছাড়াও অন্যান্য দল থেকে ১৩৫৭ জনের মনোনয়ন জমা পড়েছে। সে হিসাবে রাজনৈতিক দল থেকে মোট প্রার্থীর সংখ্যা ২৫৬৭ জন। এর বাইরে আরও ৪৯৮ জন স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ মনোনয়ন জমা দেওয়া সর্বমোট প্রার্থীর সংখ্যা ৩০৬৫ জন যা ১৯৯১ সালে গণতন্ত্রের পুনর্যাত্রার পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

এবার মোট ৩৯ জন অনলাইনে তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

এর আগে ১৯৯১ সালের নির্বাচনে সর্বোচ্চ ৩,৮৫৫ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। এর পর ১৯৯৬ সালের জুনের নির্বাচনে ৩,০৯৩ জন, ২০০১ সালের নির্বাচনে ২,৫৬৩ জন ২০০৮ সালের নির্বাচনে ২,৪৬০ জন ও ২০১৪ সালের নির্বাচনে ১,১০৭ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন।

আসন্ন নির্বাচনে প্রধান দুই রাজনৈতিক দল তাদের জোটের শরিকদের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়ে এখনও চূড়ান্তভাবে একমত হতে পারেনি। দুপক্ষ থেকেই হয়েছে, জোটের শরিক দলগুলো থেকে ইচ্ছামতো মনোনয়ন দাখিল করা হয়েছে। পরে এ ব্যাপারে তারা চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসবেন।

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

9h ago