তাবলিগ জামাতের দ্বন্দ্বে ফ্লাইট ধরতে পারছেন না যাত্রীরা

বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষ ঢাকায় বিমানবন্দর সড়কে সংঘর্ষে জড়িয়েছে। সকাল থেকেই রাজধানীর অতিগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি যান চলাচল বন্ধ থাকায় অনেক যাত্রীই শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাদের নির্ধারিত ফ্লাইট ধরতে পারছেন না। অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক কিছু এয়ারলাইনসের ফ্লাইট দেরিতে ছাড়লেও সব যাত্রী উপস্থিত হতে পারছেন না বলে জানা গেছে।
বিমানবন্দর সড়কে তাবলিগ জামাতের বিবাদমান দুপক্ষের সংঘর্ষ ও অবরোধে বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা। ছবি: পলাশ খান

বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষ ঢাকায় বিমানবন্দর সড়কে সংঘর্ষে জড়িয়েছে। সকাল থেকেই রাজধানীর অতিগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি যান চলাচল বন্ধ থাকায় অনেক যাত্রীই শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাদের নির্ধারিত ফ্লাইট ধরতে পারছেন না। অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক কিছু এয়ারলাইনসের ফ্লাইট দেরিতে ছাড়লেও সব যাত্রী উপস্থিত হতে পারছেন না বলে জানা গেছে।

দুপুর দেড়টায় থাই এইয়ারয়েজের একটি ফ্লাইট ঢাকা ছাড়ার কথা ছিল। কিন্তু বিমান সংস্থাটির সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ফ্লাইট ছাড়ার সময় পর্যন্ত মাত্র ৫০ শতাংশ যাত্রী বিমানবন্দর পর্যন্ত পৌঁছতে পেরেছে। অন্য যাত্রীদের জন্য তারা অপেক্ষা করছেন।

বিমানবন্দরের এয়ারট্রাফিক কনট্রোল টাওয়ারে দায়িত্বপ্রাপ্ত সিভিল এভিয়েশন অথরিটির কর্মকর্তা মো. জাকির দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, যানজটে আটকা পড়া ৮-১০ জন যাত্রী তাদেরকে ফোন করে ফ্লাইট বিলম্ব করার জন্য অনুরোধ করেছেন।

সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইনসের দুবাইগামী একটি ফ্লাইট ছেড়েছে। ১০ থেকে ১৫ জন যাত্রী এই ফ্লাইট ধরতে পারেননি বলে এয়ারলাইনস সূত্রে জানা গেছে। চ্যানেল আই'র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর এই ফ্লাইটে যাওয়ার কথা ছিল। তিনিও বিমানবন্দরে পৌঁছতে পারেননি। 

ইউএস বাংলার কোলকাতাগামী ফ্লাইট ৩০ মিনিটি দেরিতে ছাড়লেও ১০-১৫ জন যাত্রীকে ছাড়াই যেতে হয়েছে।

দুপুর দেড়টায় রিজেন্ট এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট ছাড়ার কথা থাকলেও সেটি এখন দেরি করছে। দুপুরে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তাদের মাত্র ৫০ শতাংশের মতো যাত্রী বিমানবন্দরে উপস্থিত হতে পেরেছিলেন। অন্যান্য যাত্রীদের জন্য এই ফ্লাইটেও বিলম্ব হচ্ছে।

এর বাইরে দুপুরে ইউএস বাংলা, নভো এয়ার ও বাংলাদেশ বিমানের অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট রয়েছে। সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকায় নির্ধারিত সময়ে এই ফ্লাইটগুলো ছাড়তে পারবে কি না সেটি নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। দুপুরে আন্তর্জাতিক রুটে বাংলাদেশ বিমান ও চায়না ইস্টার্নেরও একটি ফ্লাইট রয়েছে।

যান চলাচল বন্ধ থাকায় শত শত মানুষকে বিমানবন্দর সড়কে হেঁটে গন্তব্যের দিকে রওনা দিতে দেখা গেছে। অনেককেই ভারি লাগেজ নিয়ে মোটরসাইকেলে করে বিমানবন্দরের দিকে যাচ্ছেন।

Comments

The Daily Star  | English

Secondary schools, colleges to open from Sunday amid heatwave

The government today decided to reopen secondary schools, colleges, madrasas, and technical education institutions and asked the authorities concerned to resume regular classes and activities in those institutes from Sunday amid the ongoing heatwave

1h ago