পাকিস্তানের সঙ্গে বিএনপিকে জড়িয়ে আ. লীগ মিথ্যাচার করছে: ফখরুল

সরকার সুপরিকল্পিতভাবে বিএনপির বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে-এমন অভিযোগ তুলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কোনো বিদেশি সংস্থা বা রাষ্ট্রের সঙ্গে বিএনপির কোনো ধরনের সম্পর্ক নেই। বিএনপি কখনোই ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসার কোনো চেষ্টাও করেনি।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

সরকার সুপরিকল্পিতভাবে বিএনপির বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে-এমন অভিযোগ তুলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কোনো বিদেশি সংস্থা বা রাষ্ট্রের সঙ্গে বিএনপির কোনো ধরনের সম্পর্ক নেই। বিএনপি কখনোই ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসার কোনো চেষ্টাও করেনি।

পাকিস্তান ও আইএসআইয়ের সঙ্গে বিএনপিকে জড়িয়ে আওয়ামী লীগের দিক থেকে যে বক্তব্য এসেছে সেটিকে ‘চমকপ্রদ মিথ্যাচার’ বলে উড়িয়ে দেন তিনি।

গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আজ সোমবার বিকেলে প্রেস ব্রিফিংয়ে ফখরুল দাবি করেন, ‘সরকারি অর্থ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, প্রিন্ট মিয়াসহ অন্যান্য মাধ্যমকে ব্যবহার করে এই অপপ্রচারে মেতে উঠেছে আওয়ামী লীগ।’

ফখরুল বলেন, গতকাল দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে একটি ‘সিন্ডিকেটেড নিউজ’ প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, পাকিস্তানি দূতাবাসের সঙ্গে আমরা এখানে বৈঠক করেছি আর দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান পাকিস্তানের সামরিক গোয়েন্দা সংস্থা-আইএসআই’র সঙ্গে লন্ডনে বৈঠক করেছেন। এটা আওয়ামী লীগের একজন যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রহমান প্রথমে বলেছেন। পরে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও এই কথা বলেছেন।

আওয়ামী লীগের মতো একটি দলের সাধারণ সম্পাদক ও দায়িত্বশীল মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের এই বক্তব্য ‘রাজনৈতিক শিষ্টাচারে আঘাত’ হিসেবে মনে করছেন তিনি।

গতকাল রোববার দুপুরে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেছিলেন, লন্ডনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের সঙ্গে আইএসআইয়ের ও পাকিস্তান হাইকমিশনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের গোপন বৈঠক হয়েছে।

একে ‘নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্রের অংশ’ হিসেবে দেখছে আওয়ামী লীগ।

তিনি আরও বলেছিলেন, একটি রাষ্ট্রের সঙ্গে আরেকটি রাষ্ট্রের কূটনৈতিক সম্পর্কের কারণে দূতাবাসের সঙ্গে যাতায়াত থাকতে পারে। তবে বিজয়ের এই মাসে আসন্ন নির্বাচন সামনে রেখে পাকিস্তান হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ জনমনে প্রশ্নের সঞ্চার করে।

Comments