মিরপুরে কি শেষ ম্যাচ খেলে ফেললেন মাশরাফি?

আগামী বিশ্বকাপের পর ক্রিকেটে থাকার সম্ভাবনা খুবই কম। এমন ইঙ্গিত অনেকবারই দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। যদিও খোলাসা করে কিছুই বলেননি কখনো। আর যদি তাই হয় তাহলে এদিন মিরপুরে হোম অব ক্রিকেটে হয়তো নিজের শেষ ম্যাচ খেলে ফেললেন অধিনায়ক। কারণ আগামী বিশ্বকাপের আগে যে এ মাঠে আর খেলা নেই।
ম্যাচ হারার পর টাইগাররা। ছবি: ফিরোজ আহমেদ।

আগামী বিশ্বকাপের পর ক্রিকেটে থাকার সম্ভাবনা খুবই কম। এমন ইঙ্গিত অনেকবারই দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। যদিও খোলাসা করে কিছুই বলেননি কখনো। আর যদি তাই হয় তাহলে এদিন মিরপুরে হোম অব ক্রিকেটে হয়তো নিজের শেষ ম্যাচ খেলে ফেললেন অধিনায়ক। কারণ আগামী বিশ্বকাপের আগে যে এ মাঠে আর খেলা নেই।

কি ভাবছেন মাশরাফি? এটাই কি তার শেষ ম্যাচ? স্বাভাবিকভাবেই ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় তাকে। কিন্তু আবারো দ্বিধা রেখে গেলেন অধিনায়ক, ‘বলতে পারছি না কি হবে সামনে। হতেও পারে নাও হতে পারে। দেখা যাক।’

মিরপুরে এদিন উইন্ডিজের বিপক্ষে হেরে গেছে বাংলাদেশ। যদি শেষ ম্যাচই হয় তাহলে বিদায়টা খুব একটা সুখকর হলো না তার। আর যদি না হয় সামনে হয়তো জয় দিয়েই বিদায় নেওয়ার সুযোগ থাকবে। তবে কিছুটা আবেগি হয় পড়েছিলেন অধিনায়ক। কারণ মাশরাফি যখন পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন তখন অনেক দর্শক কাঁদছিলেন।

আর ভক্তদের কান্না ছুঁয়ে গেছে মাশরাফিকেও, ‘খুবই স্বাভাবিক আমরা তো একটু আবেগি। এই জিনিস গুলো অবশ্যই স্পর্শ করবে খুব স্বাভাবিক। ওই জিনিস গুলো আমার সামনে ঘটলে আমিও অনুভব করতাম। এটা অবশ্যই ভালো লাগা যেমন তার থেকে খারাপ লাগাটাও লাগে। আমার দিকেও থাকে, তাদের জন্যও খারাপ লাগে। এটা খুব স্বাভাবিক, এটা একটা প্রক্রিয়া, একদিন না একদিন যেতে হবে এটা খুব স্বাভাবিক।’

টেস্ট ক্রিকেট খেলেছেন শেষ ২০০৯ সালে। গত বছর শ্রীলঙ্কায় খেলেছেন শেষ টি-টোয়েন্টি। সে উদাহরণও টেনে আনলেন মাশরাফি,’টি-টোয়েন্টি থেকে প্রায় বছর খানিক হয়ে গেছে বলে গেছি। এখন ওয়ানডে খেলছি, আর কিছুদিন হয়তো খেলবো। আসলে ঠিক শেষ ম্যাচ কিনা সেটা বলা কঠিন। কারণ আমি অনেকবার আপনাদের সামনে বলেছি আমি সিদ্ধান্ত নিয়ে কাজ করি না। এমনও হতে পারে নেক্সট ম্যাচ বা তার পরের ম্যাচ খেলে যদি মনে হয় ভালো লাগছে না তাহলে ছেড়েও দিতে পারি।’

‘আমি আসলে আমার তাৎক্ষনিক চিন্তার ওপর চলি। এভাবে কিছু বলা আমার জন্যও কঠিন। কারণ আমি চিন্তাও করি না। তবে এই জিনিসগুলো আমার জন্য অবশ্যই আবেগপ্রবণ। এই জিনিস গুলো আমার সামনে ঘটলে দুই পক্ষই কিছুটা নরম হয়ে যায়। তাই এটা যত ভালো অনুভূতি হোক অবশ্যই কিছুটা খারাপও লাগে।’ – যোগ করে আরও বলেন মাশরাফি।

তবে অধিনায়ক যাই বলেন বাস্তবতার কথা ভাবলে বিশ্বকাপের পর তার ক্রিকেটে থাকার সম্ভাবনা খুবই কম। তবে একেবারেই যে নেই তাও নয়। তার উপর রাজনীতিতে নাম লিখিয়েছেন মাশরাফি। তাই মিরপুরে এদিন জয় পেলে যে অনুভূতিটা ভালো হতো তা গোপন করলেন না অধিনায়ক, ‘হ্যাঁ জিতলে অবশ্যই ভালো হতো। বিশেষ করে সিরিজটা জিতে যেতে পারতাম। এই এদিক থেকে অবশ্যই ভালো হতো।’

Comments

The Daily Star  | English

Met office issues second three-day heat alert

Bangladesh Meteorological Department (BMD) today issued a 3-day heat alert as the ongoing heatwave is expected to continue for the next 72 hours

1h ago