জিয়া পরিবারের ছবি ব্যবহার না করায় তোপের মুখে ‘ধানের শীষ’-এর সুলতান মনসুর

ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা, আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক এমপি ও মৌলভীবাজার-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের পোস্টার কিংবা প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে জিয়া পরিবারের কোনো ছবি ব্যবহার না করায় ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।
Sultan Mansur election campaign
মৌলভীবাজার-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়। ছবি: স্টার

ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা, আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক এমপি ও মৌলভীবাজার-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের পোস্টার কিংবা প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে জিয়া পরিবারের কোনো ছবি ব্যবহার না করায় ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সেখানে প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ের ছবি দিয়ে জনৈক জসিম চৌধুরী বলেন, “হায় হায় একি দেখলাম, এতো তাড়াতাড়ি কি কুলাউড়া বিএনপির নেতৃবৃন্দ দলের প্রধান খালেদা, তারেককে ভুলে গেলেন, গতকালকের জনসভা এবং নির্বাচনী প্রধান কার্যালয়ের ব্যানারে তাদের কোনো ছবিই নাই, হায়রে আদর্শ!”

ছাত্রদলের স্থানীয় নেতা তাহমিদ খান শাওন বলেন, “যা হওয়ার হয়ে গেছে, এখন ভুলগুলো শুধরে নেয়া হোক। নির্বাচনী কার্যালয়ের প্রধান গেট থেকে অবিলম্বে এই ব্যানার সরিয়ে খালেদা, তারেক জিয়ার ছবি সংবলিত ধানের শীষের ব্যানার রাখতে হবে। নির্বাচনী পোস্টারে যেন তারেক জিয়া এবং খালেদা জিয়ার ছবি থাকে। তা না হলে আমাদেরকে পাবেন না। আপনার বিরুদ্ধে যেতে সময় লাগবে না।”

ছাত্রদলের অপর নেতা রায়হান রাব্বি বলেন, “কুলাউড়া জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের দাবী, পোস্টারে শহীদ প্রেসিডেন্ট শহীদ জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি থাকতে হবে, খুব তাড়াতাড়ি সংশোধন চাই।”

কিবরিয়া চৌধুরী বলেন, “নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। নির্বাচনী ব্যানারে দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ জিয়ার ছবি নেই, নেই বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার ছবি। কিন্তু সবচেয়ে বেশি দুঃখ লাগে বিএনপির কিছু অতি-উৎসাহীরা দলের প্রতীকের প্রচারণা না করে ব্যক্তির প্রচারণা শুরু করেছেন। তাদের মনে রাখা উচিত, ব্যক্তি ক্ষণস্থায়ী কিন্তু প্রতীক স্থায়ী।”

Sultan Mansur poster
মৌলভীবাজার-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের পোস্টার। ছবি: স্টার

ছাত্রদল নেতা সাইফুর রহমান লিখেছেন, “ঘরে বসে ভোট দেব ধানের শীষে, সব কর্মকাণ্ড বর্জন করবে জিয়ার সৈনিকরা। পাশে বসে পরিচালনা করছেন দালাল প্রকৃতির কিছু বিএনপি নেতা তাদের এসব কী চোখে পড়ে না।” তিনি ছাত্রদল, যুবদল, বিএনপি ইউনিয়নের নেতাদের পোস্টার না লাগাতে অনুরোধ করেন।

এ কে এম ফজলুল হক রুবেল বলেন, “যারা ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচন করবেন, তারা যদি নেত্রীর ছবি পোস্টারে ব্যবহার না করে, তাহলে আমি ব্যক্তিগতভাবে সমর্থন করব না।”

জিয়া উদ্দিন মোঃ ইউছুফ বলেন, “নেত্রীর ছবি নেই, তাই নকল ধান ছড়া। ভোট দেব না। কোদাল মার্কায় ভোট দেব।”

কালাম রাসেল বলেন, “মা খালেদার মুক্তির মিছিলে আজ দেশে জাতীয় ঐক্য গঠন হয়েছে।তারই ফলশ্রুতিতে ঐক্যের নেতা হিসাবে আমরা সুলতান মনসুরকে পেয়েছি। এই পরিবারের একজন সদস্য হিসাবে সামান্য কথা বলতে চাই, আমরা সারাজীবন ধানের শীষের ভোট চাইতে গেছি মানুষের দ্বারে দ্বারে। তখন আমাদের পোস্টার ছিল জিয়া পরিবারের ছবি সম্বলিত। কিন্তু এবার তার ব্যতিক্রম হওয়ায় সমস্যায় পড়তে হতে পারে আমাদের।”

দ্য ডেইলি স্টারের পক্ষ থেকে মৌলভীবাজার-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের সঙ্গে যোগাযোগের করা হলে তিনি বলেন, “জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যানার-পোস্টার সাজানো হয়েছে।”

Comments

The Daily Star  | English

Iran launches drone, missile strikes on Israel, opening wider conflict

Iran had repeatedly threatened to strike Israel in retaliation for a deadly April 1 air strike on its Damascus consular building and Washington had warned repeatedly in recent days that the reprisals were imminent

19m ago