নির্বাচন কমিশনকে ডেকে রাষ্ট্রপতি প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিতে পারেন: শাহদীন মালিক

এখন যেসব ঘটনা ঘটছে তাতে মানুষের মধ্যে শঙ্কা তৈরি হচ্ছে। এই অবস্থায় আর দেরি না করে রাষ্ট্রপতির উচিত জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়ে জনগণকে আশ্বস্ত করা, যে ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। এই বাণীটি সবার কাছে পৌঁছে দিতে পারেন তিনি। বক্তব্য সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. শাহদীন মালিকের।

আসন্ন জাতীয় নির্বাচন, সমসাময়িক রাজনীতি, ঘটনা- দুর্ঘটনা ও তার ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ নিয়ে চলছে দ্য ডেইলি স্টারের বিশেষ আয়োজন নির্বাচন সংলাপ ২০১৮। আজ (১৫ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠানের চতুর্থ দিনে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক। উপস্থাপনায় ছিলেন দ্য ডেইলি স্টারের প্ল্যানিং এডিটর শাখাওয়াত লিটন।

শাহদীন মালিক মনে করছেন, আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী প্রচারাভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ওপর যেসব হামলা হয়েছে এবং তাতে যে ভীতির পরিবেশ তৈরি হচ্ছে তাতে একটি পক্ষ সাময়িকভাবে লাভবান হলেও আখেরে দেশ জাতি ও রাষ্ট্রেরই ক্ষতি হবে। এই অবস্থায় জনগণকেই রাষ্ট্রের মালিকানা বুঝে নেওয়ার জন্য এগিয়ে আসতে হবে।

সুপ্রিম কোর্টের এই আইনজীবী বলেন, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনের সব ক্ষমতা থাকলেও গত ১৫ দিনে দেশে যেসব ঘটনা ঘটেছে তাতে আমাদের কারও নির্বাচন কমিশনের ওপর আস্থা আসছে না।

তাহলেই এই অবস্থা থেকে উত্তরণেরই বা উপায় কী? শাহদীন মালিক মনে করেন, এই অবস্থায় নির্বাচন কমিশনকে জনগণের আস্থার জায়গায় ফিরিয়ে আনতে এখন গণতন্ত্রের স্বার্থেই রাষ্ট্রপতিকে অভিভাবকের ভূমিকা থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। সেই সঙ্গে নির্বাচন কমিশনও দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নিয়ে পরিস্থিতির বদল ঘটাতে পারে।

তিনি আরও বলেন, এখন যেসব ঘটনা ঘটছে তাতে মানুষের মধ্যে শঙ্কা তৈরি হচ্ছে। এই অবস্থায় আর দেরি না করে রাষ্ট্রপতির উচিত জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়ে জনগণকে আশ্বস্ত করা, যে ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। এই বাণীটি সবার কাছে পৌঁছে দিতে পারেন তিনি। সেই সঙ্গে সরকারের সঙ্গে আলোচনা না করেও নির্বচন কমিশনকে ডেকে নিয়ে তাদের কী প্রয়োজন বা কোথায় অসুবিধা হচ্ছে সে কথাগুলো শুনতে পারেন রাষ্ট্রপতি।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে

Comments

The Daily Star  | English

MV Abdullah passing through high-risk piracy area

Precautionary safety measures in place, Italian Navy frigate escorting it

40m ago