ওয়ার্নারের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছেন জাকের আলিরা

যখন দল খুব বিপদে তখন তো বটেই, যখন দল অনায়াসে জেতার অবস্থানে তখনও নিবেদনের বিন্দুমাত্র কমতি রাখেন না ডেভিড ওয়ার্নার। কোথায় খেলতে এসেছে, প্রতিপক্ষ কারা এসব বাদ রেখে তাকে তাতিয়ে দেয় নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার তাড়না, নিজের প্রতি সৎ থাকার বিশ্বাস। অস্ট্রেলিয়ান এই ব্যাটসম্যান ফিরে যাচ্ছেন শনিবারের ম্যাচ খেলেই। কিন্তু তার আগে সিলেট সিক্সার্সের বাংলাদেশি তরুণ ক্রিকেটারদের দিয়ে যাচ্ছেন ক্রিকেটীয় নানা পাঠ।
জুটিতে ডেভিড ওয়ার্নার ও জাকের আলি। ছবি: বিসিবি

যখন দল খুব বিপদে তখন তো বটেই, যখন দল অনায়াসে জেতার অবস্থানে তখনও নিবেদনের বিন্দুমাত্র কমতি রাখেন না ডেভিড ওয়ার্নার। কোথায় খেলতে এসেছে, প্রতিপক্ষ কারা এসব বাদ রেখে তাকে তাতিয়ে দেয় নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার তাড়না, নিজের প্রতি সৎ থাকার বিশ্বাস। অস্ট্রেলিয়ান এই ব্যাটসম্যান ফিরে যাচ্ছেন শনিবারের ম্যাচ খেলেই। কিন্তু তার আগে সিলেট সিক্সার্সের বাংলাদেশি তরুণ ক্রিকেটারদের দিয়ে যাচ্ছেন ক্রিকেটীয় নানা পাঠ।

শুক্রবার ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে সিলেট সিক্সার্স ১৩তম ওভারে ৮৬ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর ওয়ার্নারের সঙ্গে যোগ দেন জাকের আলি অনিক। সিক্সার্স দলে বাংলাদেশিদের মধ্যে সবচেয়ে তরুণদের একজন তিনি। বৃহত্তর সিলেটের ছেলে অনিক ওয়ার্নারের সঙ্গে গড়েন ৬৩ রানের জুটি।

পুরো জুটিতে নিজে তো খেলেছেনই, ডানহাতি জাকেরকে দিয়েও খেলিয়েছেন। তাদের দুজনের রানিং বিটুইন দ্য উইকেট ছিল চোখে পড়ার মতো। ম্যাচ শেষে জাকেরই জানালেন ওয়ার্নার কি বলে গাইড করেছিলেন তাকে,  ‘চাপ ছিল না ওর সঙ্গে ব্যাট করতে । ও শুধু বলছিল ব্যাটে বল লাগাও। আর কিচ্ছু না। আমার ওটাতেই মনোযোগ ছিল। সেটা অটোমেটিক হচ্ছিল। একবারও স্কোরকার্ডের দিকে তাকাইনি। ও বলছিল বি স্মার্ট। তুমি শুধু তোমার খেলা খেল। আর ওকে মিস করব তো অবশ্যই।’

ওয়ার্নারের ৪৩ বলে ৬৩ রানের ইনিংস থামার পরও ব্যাট চালিয়েছেন জাকের। ১৮ বলে করেছেন ২৫ রান।

এত বড় মাপের একজন ক্রিকেটারকে এত কাছ থেকে পেয়ে জাকের আলি, আফিফ হোসেন, তৌহিদ হৃদয়ের মতো তরুণরা কি শিখলেন? জাকের প্রথমেই বললেন কমিটমেন্টের কথা, ‘অবশ্যই অনেক কিছু শেখার আছে ওর কাছ থেকে। গত ম্যাচে দেখেছেন  যখন ওদের ৪ বলে ৪০ রান (রংপুরকে হারানোর ম্যাচে) দরকার তখনও তার কী চেষ্টা, কী দুর্দান্ত ডাইভ দিচ্ছে। জাস্ট কমিটমেন্ট। সেটা সে দেখিয়েছে।’

জুটিতে প্রায়ই এক রানকে দুই রান বানাতে দেখা গেছে ওয়ার্নারকে। সাতটি ডাবলস নিয়েছেন, এরমধ্যে সাত বলের মধ্যেই পাঁচটি। যখন খুব বেশি মারা যাচ্ছিল না সেটা পোষাতে এই তরিকায় গিয়েছেন ৩২ বছর বয়সী ওয়ার্নার। তরুণ জাকের জন্য যা খুব বড় এক পাঠ। তিনি জানালেন ম্যাচের আগে থেকেই ফিটনেস নিয়ে আলাদা পরামর্শ দিয়েছেন ওয়ার্নার। এই পরামর্শ কাজে লাগাতে বলেছেন জীবনভরই,  ‘ও সকাল বেলায় বলছিল ফিটনেস অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যত বয়সই হোক তোমার এটা ঠিক রাখতে হবে। ম্যাচের পরের দিন জিম করতে হবে। বিশেষ করে টি–টোয়েন্টি ম্যাচে দ্রুত রিকোভার করতে হবে। ঠিকমতো ঘুমাতে হবে। তোমার অনেক এনার্জি, পাওয়ার লাগবে। জিমে কিছু ওয়েট নিয়ে কাজ করবে। এই তো।’       

Comments

The Daily Star  | English
national election

Human rights issues in Bangladesh: US to keep expressing concerns

The US will continue to express concerns on the fundamental human rights issues in Bangladesh including the freedom of the press and freedom of association and urge the government to uphold those, said a senior US State Department official

5m ago