সালার মৃত্যু নিয়ে সমর্থকের মজা, অতঃপর...

রেকর্ড ১৭ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে ফরাসি ক্লাব নঁতে থেকে এমিলিয়ানো সালাকে দলে টেনেছিল ওয়েলসের ক্লাব কার্ডিফ সিটি। ফ্রান্স থেকে ইংল্যান্ডের উড়োজাহাজও ধরেছিলেন এ সালা। কিন্তু দুর্ভাগ্য, গন্তব্যে আর পৌঁছাতে পারেননি আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়। তাতে স্তব্ধ সমগ্র ফুটবলবিশ্ব। অথচ মৃত সেই খেলোয়াড় নিয়েও মজা করতে ছাড়েননি সাউদাম্পটনের দুই সমর্থক। ফলে তাদের আটক করেছে হাম্পার্শায়ার পুলিশ।
ছবি: এএফপি

রেকর্ড ১৭ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে ফরাসি ক্লাব নঁতে থেকে এমিলিয়ানো সালাকে দলে টেনেছিল ওয়েলসের ক্লাব কার্ডিফ সিটি। ফ্রান্স থেকে ইংল্যান্ডের উড়োজাহাজও ধরেছিলেন এ সালা। কিন্তু দুর্ভাগ্য, গন্তব্যে আর পৌঁছাতে পারেননি  আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়। তাতে স্তব্ধ সমগ্র ফুটবলবিশ্ব। অথচ মৃত সেই খেলোয়াড় নিয়েও মজা করতে ছাড়েননি সাউদাম্পটনের দুই সমর্থক। ফলে তাদের আটক করেছে হাম্পার্শায়ার পুলিশ।

সেন্ট মেরি স্টেডিয়ামে আগের দিন সাউদাম্পটনের সঙ্গে কার্ডিফ সিটির খেলা চলাকালীন সময়ের ঘটনা। ম্যাচের একসময় দুই দর্শক দুই হাত প্রসারিত করে দুলছিলেন সেই দুই সমর্থক। মনে হচ্ছিল যেন একটি দোদুল্যমান উড়োজাহাজ গন্তব্যে নামার চেষ্টা করছে। বারংবার একই কাণ্ড ঘটিয়ে প্রতিপক্ষকে দুয়ো দেওয়ার চেষ্টা করেন তারা। যেটা স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেননি কার্ডিফ সমর্থকরা। এ ধরণের আচরণ করায় তাদের অসুস্থ বলেছেন তারা।

ঘটনা স্বাভাবিকভাবে নেয়নি সাউদাম্পটন ক্লাবও। এমন আচরণে বেজায় খেপেছে ক্লাবটি। এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে,  ‘কার্ডিফ সিটির বিপক্ষে আমাদের ম্যাচের সে ঘটনায় সাউদাম্পটন ফুটবল ক্লাব নিশ্চিত করছে দুই জন সমর্থককে চিহ্নিত করা হয়েছে। এবং তাদের বিস্তারিত পুলিশের কাছে দেওয়া হয়েছে। ক্লাব হাম্পার্শায়ার পুলিশের সঙ্গে একত্রে কাজ করবে। এ ধরণের প্রত্যেকটি ঘটনা খুঁজে বের করা হবে।’

এবং এ কাণ্ডে জড়িত প্রত্যেককেই দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিবে বলেও জানিয়েছে তারা, ‘এ ধরণের ব্যবহার আমাদের আমাদের খেলায় কোন স্থান নেই। আর সেন্ট মারি স্টেডিয়ামে এসব বরদাস্ত করা হবে না। এ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত প্রত্যেককে নিষিদ্ধ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিবে ক্লাব।’

অথচ এ ম্যাচের আগে সালার স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয় সেন্ট মারিতে। এবং তার নাম নিয়ে গানও গায় সমর্থকরা। আর সাউদাম্পটনের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় সালাকে উৎসর্গ করেছেন সতীর্থরা।

গত ২১ জানুয়ারি ইংল্যান্ডের পথে এক ইঞ্জিনবিশিষ্ট পাইপার ম্যালিবু উড়োজাহাজটি নিখোঁজ হয়। বাজে আবহাওয়ার কারণে মাঝপথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এক পর্যায়ে বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে যায় ইংলিশ চ্যানেলে। এরপর থেকে চলে উদ্ধারকাজ। কোস্টগার্ড ও পুলিশ। তাকে পাওয়ার আশা ছেড়ে দিলেও ছাড়েনি ফুটবল–ভক্ত ও সতীর্থরা। সবাই অর্থ দিয়ে উদ্ধারকাজ অব্যাহত রাখেন। তাতেই পাওয়া যায় মৃত সালাকে।

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

9h ago