খেলা

১ মার্চ শুরু হবে ডিপিএল

দেশের একমাত্র লিস্ট-এ টুর্নামেন্ট ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) এবার আগেভাগেই শুরু করতে চেয়েছিল সিসিডিএম। সে অনুযায়ী শুরু হয়েছিল তোড়জোড়ও। তবে বিপিএলের ঠাসা ব্যস্ততার পর কিছুটা সময় নিয়ে মার্চের ১ তারিখ থেকে শুরু হবে পঞ্চাশ ওভারের টুর্নামেন্ট।
Dhaka premier league
ফাইল ছবি

দেশের একমাত্র লিস্ট-এ টুর্নামেন্ট ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) এবার আগেভাগেই শুরু করতে চেয়েছিল সিসিডিএম। সে অনুযায়ী শুরু হয়েছিল তোড়জোড়ও। তবে বিপিএলের ঠাসা ব্যস্ততার পর কিছুটা সময় নিয়ে মার্চের ১ তারিখ থেকে শুরু হবে পঞ্চাশ ওভারের টুর্নামেন্ট।

প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসর শুরু হওয়ার কথা ছিল ২৫ ফেব্রুয়ারি। তার আগে ১২ ফেব্রুয়ারি প্লেয়ার্স ড্রাফটের মাধ্যমে দল গুছানোর কথা ছিল ক্লাবগুলোর। কিন্তু সিসিডিএমের সমন্বয়ক আমিন খান জানান পিছিয়েছে দুই তারিখই।  সোমবার গণমাধ্যমকে তিনি বলেন ডিপিএল শুরু হবে ১ মার্চ। আর প্লেয়ার্স ড্রাফটের সম্ভাব্য তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি।

ক্লাবগুলোর বেশিরভাগ কর্মকর্তা বিপিএলের বিভিন্ন ফ্রেঞ্চাইজিতে যুক্ত থাকাটাই লিগ পেছানোর কারণ বলে জানান তিনি।

আগের বারের মতো এবারও ডিপিএলে থাকছে না কোন আইকন ক্যাটাগরি। সর্বোচ্চ গ্রেড ধরা হচ্ছে এ+। এই ক্যাটাগরির ক্রিকেটাররা পারিশ্রমিক পাবেন ৩৫ লাখ। আমিন খান জানান, ‘আমাদের আগের মতই, এ প্লাস ক্যাটাগরি থাকবে, এ থাকবে, এভাবেই ছয় সাতটা গ্রেড থাকবে। সেই অনুযায়ীই ৩৫-৩০ লাখ থাকা এ+ গ্রেড, ৩০-২৫ লাখ টাকা থাকবে এ গ্রেডে, বি গ্রেডে থাকবে ২০-১৮ লাখ, এভাবে আমরা গ্রেড ভাগ করেছি। সর্বোচ্চ ৩৫ লাখ থাকবে। ’

ক্লাবগুলো আগের মৌসুম থেকে সর্বোচ্চ তিনজন খেলোয়াড়কে ধরে রাখতে পারবে। ড্রাফটের আগেই সিসিডিএমকে ধরে রাখা ক্রিকেটারদের নাম জানাতে হবে ক্লাবগুলোকে। লিগ শুরুর আগে ধরে রাখা এসব ক্রিকেটারদের ৫০ শতাংশ পারিশ্রমিক পরিশোধের কথাও বলে আসছে আয়োজকরা।

১ মার্চ লিগ শুরু হওয়ায় টেস্ট স্কোয়াডের কেউই শুরুর দিকে এমনিতেই লিগে অংশ নিতে পারছেন না। পুরো লিগেই বিশ্রাম চেয়েছেন তামিম ইকবাল। ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা কেবল সুপার লিগ খেলার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। সামনে ঠাসা সূচি, বিশ্বকাপ থাকার

জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের বিশ্রামের বাস্তবতা মেনে নিয়েই ক্লাবগুলো এবার লিগ শুরু করবে।

Comments

The Daily Star  | English

The taste of Royal Tehari House: A Nilkhet heritage

Nestled among the busy bookshops of Nilkhet, Royal Tehari House is a shop that offers students a delectable treat without burning a hole in their pockets.

2h ago