২০-০ গোলে হারার পর লিগ থেকে ছাঁটাই ইতালির ক্লাব

চার চারটি বিশ্বকাপ জিতেছে ইতালি। দেশটির লিগেরও বেশ নামডাক রয়েছে। অথচ সে দেশের একটি ক্লাব কিনা প্রতিপক্ষের কাছে হেরেছে ২০-০ গোলে। অবশ্য তার পেছনেও রয়েছে বেশ কিছু কারণ। আর সব ঘটনা তদন্তের পর ফুটবল ক্লাব প্রো পিয়াচেনসাকে ছাঁটাই করেছে কর্তৃপক্ষ।
ছবি: সংগ্রহীত

চার চারটি বিশ্বকাপ জিতেছে ইতালি। দেশটির লিগেরও বেশ নামডাক রয়েছে। অথচ সে দেশের একটি ক্লাব কিনা প্রতিপক্ষের কাছে হেরেছে ২০-০ গোলে। অবশ্য তার পেছনেও রয়েছে বেশ কিছু কারণ। আর সব ঘটনা তদন্তের পর ফুটবল ক্লাব প্রো পিয়াচেনসাকে ছাঁটাই করেছে কর্তৃপক্ষ।

ঘটনাটি সিরি-সি’এর। রোববার তৃতীয় বিভাগ লিগের সে ম্যাচে কুনেওর বিপক্ষে নাস্তানুবাদ হয় প্রো পিয়াচেনসা। মূল সমস্যাটি হয়েছে খেলোয়াড়দের বেতন ভাতা ঠিকভাবে দিতে না পারায়। বেতন না পেয়ে দলের খেলোয়াড়রা একযোগে ধর্মঘটে গিয়েছেন। ফলে বিভিন্ন একাডেমী থেকে তরুণদের নিয়ে দল গঠনের চেষ্টা করে ক্লাব কর্মকর্তারা।

ম্যাচে খেলার জন্য ১১ জন খেলোয়াড়ই মাঠে নামাতে পারেনি দলটি। মাত্র ৭ জন খেলোয়াড় নিয়ে মাঠে নেমেছিল তারা। অবশ্য মাঠে নেমেছিলেন ৮ জন। কিন্তু একজন পরিচয় পত্রের কাগজ দিতে ব্যর্থ হন। বাকি সাতজনের সবাই ছিলেন টিনএজার। অধিনায়ক নিকোলা কিরিগলিয়ানোর বয়স সর্বোচ্চ ১৮ বছর। যিনি কিনা সে দলের ম্যানেজার হিসেবেও কাজ করেছেন। এমনকি যখন কোন খেলোয়াড় আঘাত পেয়েছেন তার পরিবর্তে ফিজিও থেরাপিস্টকে মাঠে নামতে হয়েছে।

ফুটবলের নিয়ম অনুযায়ী কোন দলকে খেলতে হলে ম্যাচের সময় কমপক্ষে ৭ জন খেলোয়াড় মাঠে থাকতে হবে। মূলত এ কারণেই ফিজিও থেরাপিস্টকেও খেলতে হয়েছে। এর আগে ৭ জনের কোটা পূর্ণ করতে না পারায় পরিত্যক্ত হয় ২টি ম্যাচ।

ফলে ঘটনার তদন্তে নামে লিগ কমিটি। সোমবার গভর্নিং কমিটি জানতে পারে, সে ম্যাচে খেলা বেশ কিছু খেলোয়াড় নিবন্ধিত নয়। এ ঘটনাকে ‘অগ্রহণযোগ্য ব্যাবহার’ এবং ম্যাচটিকে ‘বিপদজনক’ উল্লেখ করে প্রো পিয়াচেনসাকে লিগ থেকে বিতাড়িত করেছে তারা। এছাড়াও জরিমানা করা হয়েছে ২০ হাজার ইউরো।

Comments

The Daily Star  | English

Schools, colleges to open from Sunday amid heatwave

The government today decided to reopen all schools, colleges, madrasas, and technical education institutions and asked the authorities concerned to resume regular classes and activities in those institutes from Sunday amid the ongoing heatwave

8m ago