ওয়াহেদ ম্যানশনের নিচতলায় দাহ্য রাসায়নিকের বিশাল মজুদ

রাজধানীর চকবাজারের হাজী ওয়াহেদ ম্যানশন নামের যে ভবনটিতে আগুনের সূত্রপাত বলে দাবি করা হচ্ছে, সেই ভবনটির নিচতলায় বেআইনিভাবে মজুদ করে রাখা শত শত দাহ্য রাসায়নিকের কনটেইনার এবং প্যাকেট খুঁজে পেয়েছেন দমকল বাহিনীর কর্মকর্তারা।

রাজধানীর চকবাজারের হাজী ওয়াহেদ ম্যানশন নামের যে ভবনটিতে আগুনের সূত্রপাত বলে দাবি করা হচ্ছে, সেই ভবনটির নিচতলায় বেআইনিভাবে মজুদ করে রাখা শত শত দাহ্য রাসায়নিকের কনটেইনার এবং প্যাকেট খুঁজে পেয়েছেন দমকল বাহিনীর কর্মকর্তারা।

দমকল বাহিনীর লালবাগ স্টেশনের কর্মকর্তা রতন কুমার দেবনাথ আজ (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা তদন্তে গিয়ে আজ সকালে দমকল বাহিনীর একটি দল ভবনটির নিচতলার গেটের তালা ভেঙে সেখানে রাসায়নিক পদার্থের একটি গুদাম খুঁজে পেয়েছে।

তিনি বলেন, “ভবনটির নিচতলায় যে এভাবে শত শত দাহ্য রাসায়নিকের কনটেইনার এবং প্যাকেট মজুদ করে রাখা হয়েছিলো, আগুন নেভানোর সময় তা আমাদের জানা ছিলো না।”

“কোনভাবে যদি আগুন ভবনটির নিচতলায় গিয়ে রাসায়নিক পদার্থের সংস্পর্শে আসতো, তাহলে তা আশপাশের অন্যান্য ভবনেও ছড়িয়ে পড়তো এবং যা সহজে থামানো যেতো না,” যোগ করেন তিনি।

তবে, ওই গুদামে সংরক্ষিত কনটেইনারগুলো সব রঙের এবং সেখানে কোনো দাহ্য রাসায়নিক পদার্থ নেই জানিয়ে নিচতলার গেট ভাঙার সময় স্থানীয় কয়েকজন ব্যবসায়ী দমকল কর্মীদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন বলেও জানান তিনি।

রতন কুমার দেবনাথ বলেন, “কোনো আবাসিক ভবনে কেউ দাহ্য বস্তু মজুদ করে রাখতে পারেন না। কিন্তু, এই ভবনটিতে বেআইনিভাবে শত শত দাহ্য রাসায়নিকের কনটেইনার এবং প্যাকেট মজুদ করে রাখা হয়েছিল।”

আরও পড়ুন:

‘দাহ্য রাসায়নিকই চকবাজারের আগুনকে দীর্ঘস্থায়ী করেছে’

কেমিক্যাল নয়, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে চকবাজারে আগুন: শিল্পমন্ত্রী

সরকার চকবাজার ট্র্যাজেডির দায় এড়াতে পারে না: ওবায়দুল কাদের

Comments

The Daily Star  | English
Bank Asia plans to acquire Bank Alfalah

Bank Asia moves a step closer to Bank Alfalah acquisition

A day earlier, Karachi-based Bank Alfalah disclosed the information on the Pakistan Stock exchange.

4h ago