শর্ট বল জেনেও ‘কিছু করার থাকে না’ বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের

হ্যামিল্টনে যে ফরমুলায় সফল হয়েছিল নিউজিল্যান্ড, ওয়েলিংটনেও সেই একই কৌশলে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের কাবু করেছে তারা। শরীর মুখী ক্রমাগত শর্ট বল করে নিল ওয়েগনার আবারও গুরুত্বপূর্ণ সব উইকেট কেড়ে নিয়েছেন। ওপেনারদের এনে দেওয়া দারুণ শুরুর পরও তাই পথ হারিয়ে অল্প রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। দিনশেষে ওপেনার লিটন দাস শর্ট বলে তাদের অসহায়ত্বের কথাই অকপটে স্বীকার করে নিলেন।
Neil Wagner
মোহাম্মদ মিঠুনকে ফিরিয়ে নিল ওয়েগনারের হুঙ্কার। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

হ্যামিল্টনে যে ফরমুলায় সফল হয়েছিল নিউজিল্যান্ড, ওয়েলিংটনেও সেই একই কৌশলে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের কাবু করেছে তারা। শরীর মুখী ক্রমাগত শর্ট বল করে নিল ওয়েগনার আবারও গুরুত্বপূর্ণ সব উইকেট কেড়ে নিয়েছেন। ওপেনারদের এনে দেওয়া দারুণ শুরুর পরও তাই পথ হারিয়ে অল্প রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। দিনশেষে ওপেনার লিটন দাস শর্ট বলে তাদের অসহায়ত্বের কথাই অকপটে স্বীকার করে নিলেন। 

দুদিন বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ার পর রোববার বেসিন রিজার্ভে শুরু হয় দ্বিতীয় টেস্ট। টস হেরে সবুজ ঘাসে ভরা উইকেটে ব্যাট করতে যায় বাংলাদেশ। কিন্তু শুরুটা হয় প্রত্যাশার চেয়েও ভালো। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাদমান ইসলাম প্রায় ২১ ওভার ব্যাট করে এনে দেন ৭৫ রান।

সেই ভিত ধরে এগুলেই ভালো সংগ্রহের দিকে যাওয়া যেত। কিন্তু মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুনরা শর্ট বলে ফাঁদে পড়ে নিজেদের বিলিয়ে দেন। শর্ট বলে থামেন সর্বোচ্চ ৭৪ করা তামিম , অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহরও একই হাল।  এদের সবাইকে ফিরিয়ে ২৮ রানে ৪ উইকেট নেন ওয়েগনার।

সবচেয়ে দৃষ্টিকটু ছিল মুমিনুল আর মিঠুনের আউট। দুজনেই ওয়েগনারের শর্ট বলে পরাস্ত হয়ে রিভিউ নিয়ে বাঁচার পরের বলেই আবার শর্ট বলেই ঘায়েল হয়েছেন।

দিনশেষে নিজেদের এই দুর্বলতা আড়াল করেননি দলের হয়ে কথা বলা লিটন,  'নতুন বলে আমরা যেমন জানি সুইং করবে, এরপরও আমরা অনেক সময় মারতে গিয়ে আউট হয়ে যাই। তেমনি আমরা জানি সে শর্ট বল করবে। কিন্তু বলটা এমন জায়গায় রাখে, কিছু করার থাকে না। এখানে মনোযোগ আরও বাড়িয়ে বল আরও বেশি ছাড়লে হয়তো কিছু করা যাবে।'

উইকেটে ছিল সবুজ ঘাস, বৃষ্টি থাকায় ছিল ভেজাও। এমন উইকেট হয় ভীষণ চ্যালেঞ্জের। তবে লিটন মনে করছেন এই উইকেটেও টিকতে পারলে করা যেত অনেক রান, 'উইকেট ভয়ংকর বলব না। তবে কন্ডিশন তো বোলারদের পক্ষে ছিল। এ রকম কন্ডিশনে ব্যাটসম্যানের ফোকাস ভালো থাকলে সফল হওয়ার সুযোগ বেশি থাকে। তামিম ভাই ফোকাসড ছিলেন, সফল হয়েছেন।'

নিজেদের প্রথম ইনিংস ২১১ রানে শেষ করে স্বাগতিকদেরও পেরেশানিতে রেখেছেন বাংলাদেশের পেসাররা। আবু জায়েদ রাহি ফিরিয়েছেন ওদের দুই ওপেনারকেই। ২ উইকেটে ৩৮ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করবে কিউইরা। ম্যাচের এখন যা অবস্থা তাতে ইতিবাচক দিক পাচ্ছেন লিটন,  'দুই দিন খেলা হয়নি। তার পর খুব ভালো একটি শুরু পেয়েছিলাম আমরা। যে রকম শুরু হয়েছিল, আরেকটু ভালো করা যেত। ব্যাটসম্যানরা আরেকটু মনোযোগ দিয়ে খেললে আরও ভালো হতো। এরপরও দিনের শেষে ওদের দুটি উইকেট নিতে পেরেছি এটি ভালো দিক।'

Comments

The Daily Star  | English

Why do you need Tk 1,769.21cr for consultancy?

The Planning Commission has asked for an explanation regarding the amount metro rail authorities sought for consultancy services for the construction of a new metro line.

17h ago